সন্দেশ কিংবা সুখবর

আবদুল্লাহ আল মোহন

আমাদের জ্ঞানের আনন্দময় আলোঘর, চিন্তাচর্চার প্রিয় আড্ডাস্থল সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্র এবার তার ২৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উৎযাপন উপলক্ষে আগামী ২৫-২৬ অক্টোবর ২০১৮ বৃহস্পতি ও শুক্রবার এক অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করেছে অন্যান্য বছরের মতোনই। এবারের বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানমালার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন বিশিষ্ট কবি আসাদ চৌধুরী। প্রথম দিনের অনুষ্ঠানসূচির মধ্যে রয়েছে প্রীতি সমাবেশ, সাংস্কৃতিক আয়োজন এবং রাতব্যাপী ধ্রুপদী সংগীত। এবারের আয়োজনের দ্বিতীয় দিনে আরো রয়েছে চন্দ্রশেখর-মিনা ট্রাস্ট ফাণ্ড প্রবর্তিত ‘পথিকৃৎ বিজ্ঞান সম্মাননা’ প্রদানের সূচনা অনুষ্ঠান। ২৫-২৬ অক্টোবর ২০১৮ বৃহস্পতি বিকাল ৪.৩০ হবে প্রীতি সমাবেশ আর সন্ধ্যা ৬.৩০ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষিত হবে। উৎসাহী সকলকে উক্ত আয়োজনে অংশ নিতে সবান্ধব আমন্ত্রণ জানাই আমি যেমন তেমনি অনুষ্ঠানমালায় আপনাদের সাদর আমন্ত্রণ জানিয়েছেন সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্র-এর প্রতিষ্ঠাতা ও পথিকৃৎ ফাউন্ডেশন-এর সভাপতি অধ্যাপক ড. লিয়াকত আলি। আর আজ বিনম্র শ্রদ্ধাবনত চিত্তে স্মরণ করছি আমাদের পরম প্রিয়জন অকাল প্রয়াত আসমা ভাবিকে।
ঢাকা শহরের যে কয়েকটি প্রিয় সাহিত্য-সংস্কৃতির অঙ্গন আমার ভবঘুরে পরিভ্রমণে নিত্য তীর্থস্থান (সংশয়ী ভবঘুরের আবার তীর্থস্থান !!!) বলে অনুমিত, তার মধ্যে একটি নাম সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্র। আনন্দময় চর্চায় সম্পন্ন মানুষ গড়ার চেতনা থেকে গড়ে তোলা হয়েছিল সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্র। পথিকৃৎ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠান সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্র নিয়মিত পাঠক চক্র, আলোচনা, গ্রন্থাগার এবং অন্যান্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও কার্যক্রমের মাধ্যমে জ্ঞান, মুল্যবোধ, রুচি ও হৃদয়ের প্রসারতার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। আমি মনে করি এ শহরের কিংবা দেশের যেখানেই সুস্থ চিন্তা ও যুক্তি চর্চার ধারা প্রবাহমান, সেটাই আমার আপনজন, সেখানে আমার অভিগম্যতা নিমন্ত্রণের আওয়তায় পড়ে না। আমি স্বাধীন সেসব প্রতিষ্ঠানের অনুষ্ঠানগুলোতে হাজির থেকে আলোড়িত হওয়ার সুযোগ গ্রহণের ক্ষেত্রে। জীবনের আনন্দযজ্ঞে আমার নিমন্ত্রণ তাই অবারিত, বাধাহীন। যেমনটি প্রতিবছর অক্টোবরে সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজনে গিয়ে হাজির হই। অন্যান্য অনুষ্ঠানের খবর পেলেও চলে যাই নিজ দায়িত্বে। সুতরাং আপনিও সদলবলে চলে আসুন পরিবাগে।
এবারের আয়োজনের, অনুষ্ঠানমালার যাবতীয় খুঁটিনাটি তথ্য জেনে নেওয়া যাক।–
নিয়মিত পাঠচক্র, আলোচনা, লাইব্রেরি এবং অন্যান্য অনুষ্ঠান ও কার্যক্রমের মাধ্যমে জ্ঞান, মূল্যবোধ, রুচি ও হৃদয়ের প্রসারতার লক্ষ্যে পথিকৃৎ ফাউন্ডেশন-এর প্রতিষ্ঠান সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্র দীর্ঘ দিন ধরে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। প্রতিষ্ঠানের ২৭তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদ্যাপন উপলক্ষে আগামী ২৫-২৬ অক্টোবর ২০১৮ বৃহস্পতি ও শুক্রবার সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্রে এক অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করা হয়েছে। এবারের বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠানমালার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন বিশিষ্ট কবি আসাদ চৌধুরী। প্রথম দিনের অনুষ্ঠানসূচির মধ্যে রয়েছে প্রীতি সমাবেশ, সাংস্কৃতিক আয়োজন এবং রাতব্যাপী ধ্রুপদী সংগীত। এবারের আয়োজনের দ্বিতীয় দিনে আরো রয়েছে চন্দ্রশেখর-মিনা ট্রাস্ট ফাণ্ড প্রবর্তিত ‘পথিকৃৎ বিজ্ঞান সম্মাননা’ প্রদানের সূচনা অনুষ্ঠান। এ পর্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, বাংলাদেশ এ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিলের সভাপতি ও বাংলাদেশ বিজ্ঞান একাডেমীর সেক্রেটারি অধ্যাপক ড. মেসবাহউদ্দীন আহমেদ; প্রথম এই সম্মাননা গ্রহণ করবেন বিশিষ্ট রসায়ন বিজ্ঞানী ও শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড. নীলুফার নাহার। এবারের সম্মাননা সুইডেনের উপসালা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারন্যাশনাল প্রোগ্রাম ফর কেমিকেল সায়েন্সেস-এর প্রতিষ্ঠাতা ও দীর্ঘকালীন পরিচালক এবং বাংলাদেশে বিজ্ঞান গবেষণার বিশিষ্ট পৃষ্ঠপোষক সদ্যপ্রয়াত অধ্যাপক ড. রুনে লিমিংগা-র স্মৃতির উদ্দেশ্যে নিবেদিত। বর্ষপূর্তি ও চন্দ্রশেখর-মিনা ট্রাস্ট ফান্ড প্রবর্তিত ‘পথিকৃৎ বিজ্ঞান সম্মাননা’ প্রদান অনুষ্ঠান ২৫-২৬ অক্টোবর ২০১৮, বৃহস্পতি ও শুক্রবার।

২৫ অক্টোবর ২০১৮, বৃহস্পতিবার

বিকাল ৪.৩০ : প্রীতি সমাবেশ
বিকাল ৫.৩০ : সাংস্কৃতিক আয়োজন
কল্পরোখা, আলোক শিক্ষালয়
সন্ধ্যা ৬.৩০ : প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন
উদ্বোধক : কবি আসাদ চৌধুরী
রাত ৭.০০ : সাংস্কৃতিক আয়োজন
শ্রুতিঘর, না গান গাওয়ার দল ও অন্যান্য অতিথি শিল্পীবৃন্দ
রাত ৮.৩০ : ধ্রুপদী সংগীত রজনী
উদ্বোধক : সংগীত ব্যক্তিত্ব আজাদ রহমান
উৎসর্গ : প্রয়াত উচ্চাঙ্গ সঙ্গীত শিল্পী বাবু রহমান
২৬ অক্টোবর ২০১৮, শুক্রবার বিকাল ৫.০০
চন্দ্রশেখর-মিনা ট্রাস্ট ফাণ্ড প্রবর্তিত পথিকৃৎ বিজ্ঞান সম্মাননা’ প্রদান অনুষ্ঠান
প্রধান অতিথি : অধ্যাপক ড. মেসবাহউদ্দীন আহমেদ
সভাপতি, বাংলাদেশ এ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিল ও সেক্রেটারি, বাংলাদেশ বিজ্ঞান একাডেমী
সম্মাননা প্রাপ্ত বিজ্ঞানী : অধ্যাপক ড. নীলুফার নাহার, বিশিষ্ট রসায়ন বিজ্ঞানী ও শিক্ষাবিদ
সভাপতি : অধ্যাপক ড. লিয়াকত আলি, সভাপতি, পথিকৃৎ ফাউণ্ডেশন
পথিকৃৎ বিজ্ঞান সম্মাননা: উদ্দেশ্য ও পরিকল্পনা
আশরাফ আহমেদ, সদস্য, বোর্ড অব ট্রাস্টিজ, পথিকৃৎ ফাউণ্ডেশন
অধ্যাপক ড. রুনে লিমিংগা: শ্রদ্ধাবনত স্মরণ
অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ শোয়েব, অধ্যাপক, রসায়ন বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
অধ্যাপক ড. নীলুফার নাহার: জীবন ও কর্ম
ড. কামরুল হাসান, সহকারী অধ্যাপক, রসায়ন বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
অভিজ্ঞতা ও আত্মানুসন্ধান
অধ্যাপক ড. নীলুফার নাহার, সম্মাননা প্রাপ্ত বিজ্ঞানী
প্রবর্তকের বক্তব্য
চন্দ্রশেখর দত্ত, অন্যতম প্রবর্তক, চন্দ্রশেখর-মিনা ট্রাস্ট ফাণ্ড
প্রধান অতিথি কর্তৃক সম্মাননা প্রদান
প্রধান অতিথির ভাষণ
সভাপতির সমাপনী বক্তব্য
কাল পরিক্রমায় বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক মিলনকেন্দ্র, রাজনৈতিক বা ধর্মীয় মতাদর্শকেন্দ্রিক সংগঠন বা প্রতিষ্ঠানে পরিণত না হলেও রাজধানীর পরীবাগের সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্রটি জ্ঞানপিপাসুদের কাছে এক উন্মুক্ত আশ্রয় হিসেবে টিকে আছে এখনও। আর তাই প্রতিবছরই নিয়ম করে সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্রের (যোগাযোগ ঠিকানা : সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্র ভবন, ১/ই/১ পরিবাগ, ঢাকা-১০০০, ফোন : ০২-৯৬১৪৮৭৫, ০১৮৮৪-৬১৩৪৯৪) প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে নানা সাংস্কৃতিক পর্বের সমাহারে অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করা হয়ে থাকে। অনুষ্ঠানসূচির মধ্যে থাকে প্রীতি সমাবেশ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং রাতব্যাপী ধ্রুপদী সঙ্গীত পরিবেশনা। অসাধারণ ধ্রুপদী সংগীত রজনী (বোনাস প্রিয়জনদের সাথে জম্পেস আড্ডা) উপভোগ শেষে প্রতিবারই বাসায় ফিরে আনন্দমনে দিবানিদ্রায় গমনের অভিজ্ঞতা ঘটে। আর এবারও এমনতর আলোকিত আয়োজনের জন্য অগ্রিম আন্তরিকভ অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্রের প্রাণপুরুষ সজ্জ্বন লিয়াকত ভাইকে, প্রিয়মুখ মাহফুজা আপাসহ তাঁর সহযোদ্ধাদেরকেও।

ছবি: লেখক