সরে দাড়াচ্ছেন নাজমুল হাসান পাপন

আহসান শামীমঃ বিসিবি থেকে সরে দাড়াচ্ছেন সভাপতি  নাজমুল হাসান পাপন ।২০১৩ সালের অক্টোবরে বাংলাদেশ ক্রিকেটের সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছিলেন নাজমুল হাসান পাপন। তিনিই বাংলাদেশ ক্রিকেটের প্রথম নির্বাচিত সভাপতি। সংবিধান অনুযায়ী এ বছরের অক্টোবরেই শেষ হচ্ছে তার চার বছর মেয়াদের এই পদ। তবে পদটাতে আর থাকতে চাইছেন তিনি । ৬ ফেব্রুয়ারি, সোমবার  বিকেলে নিজ কার্যালয় বেক্সিমকোর সম্মেলন কক্ষে গণমাধ্যমকে তিনি এমন কথা জানান।এসময় তিনি আরও বলেন, ‘আমার বেশ সমস্যা হচ্ছে। একটা হচ্ছে আমি একজন চাকুরিজীবি। তার চেয়েও বড় কথা হলো আমি একজন সংসদ সদস্য। আমার এলাকায় কাজ করা ও সংসদে যাওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। দেশের জন্য কাজ করাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সভাপতি হিসেবে ক্রিকেটের জন্য সময় দেয়া আমার পক্ষে এক কথায় অসম্ভব। কেননা আমি একদমই সময় পাই না। সবসময়ই আমাকে দৌঁড়ের মধ্যে থাকতে হয়। আমি আইসিসি সভা শেষ করে মাত্রই আসলাম, এখন যেতে হবে টেস্টের জন্য হায়দ্রাবাদে। ওখান থেকে দেশে ফিরে ১৫ তারিখের মধ্যে চাকুরির সুবাদে আবার যেতে হবে আরেক দেশে।’ বিসিবি সভাপতি পাপন আরও যোগ করেন, ‘এতে করে কোনো মানসিক সমস্যা হয় না, তবে শারীরিকভাবে সমস্যা হয়ে যাচ্ছে। কেননা আমাকে ভ্রমণ অনেক বেশি করতে হচ্ছে। যে সমস্ত জায়গায় সময় দেয়া দরকার বিশেষ করে আমি মনে করি চাকুরিতে আমি সময় দিতে পারছি না। আমার এলাকায় তো একেবারেই না। আমার যে সময় আছে তার ৭০-৮০ ভাগই ক্রিকেট নিয়ে বসে থাকতে হয়। কারণ এটা এমন একটা গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু যেখানে সময় দিতেই হয়। তবে আমি উপভোগ করি, ভালো না লাগলে তো আর করতে পারতাম না। তবে সমূহ সম্ভাবনা আছে নিজের তরফ থেকে নতুন করে আর মেয়াদ না বাড়ানোর।’