সাদিকুর রহমান পরাগের তিন‘টি কবিতা

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সাদিকুর রহমান পরাগ

এ-শহরের জানালাগুলো এখন মৃত

ধরে নাও, সময়টা হতে পারে

কাকডাকা ভোর অথবা ভরদুপুর

নিয়ন আলোর সন্ধ্যা বা মাঝরাত।

এ শহরের জানালাগুলো এখন আর

একে অন্যের সঙ্গে কথা বলে না,

ঝগড়া করে না, অভিমান করে না।

রাস্তায় দাঁড়িয়ে কোন জানালার

দিকে তাকিয়ে থাকা প্রেমিক

এখন আর এ-শহরে দেখা যায় না।

জানালার আড়ালে লুকিয়ে থেকে

মুগ্ধ দৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকা প্রেমিকা

এখন আর এ-শহরে দেখা যায় না।

আধখোলা জানালার আড়ালে

দুলে ওঠা পর্দায় কোন গল্প

এখন আর এ-শহরে উঁকি দেয় না।

থাই এলুমিনিয়ামের স্লাইডিং জানালায়

হারিয়ে গেছে এই শহরের জানালার

প্রতিটি প্রহরের আলাদা আলাদা গল্প।

এ-শহরের জানালাগুলো গল্প বলে না।

এ-শহরের জানালাগুলো এখন মৃত।

সব চরিত্র কাল্পনিক 

এই যে তুমি। আছো বাস্তবে।

এই যে আমি। আছি বাস্তবে।

এই যে আমরা। আছি বাস্তবে।

ধরো, একদিন ঘুম থেকে ওঠে

জানা গেল, আমরা আর বাস্তব নই।

জানা গেল, আমরা সহ চারপাশের

চরিত্রগুলো সব কাল্পনিক…।

এই বেড়ে ওঠা…

এই গড়ে ওঠা…

এই হয়ে ওঠা…

কিছুই বাস্তব না। পুরোটা-ই কাল্পনিক।

জানালার পর্দা গলে সে রকম সকাল

সত্যিই যদি সামনে এসে দাঁড়ায়, তখন

…ধূর…যতসব আজগুবি চিন্তা,

মাথাটা মনে হয় পুরোপুরি-ই গেল।

…তারপর-ও ভাবতে দোষ কী?

গল্প-উপন্যাস কিংবা চলচ্চিত্রের

শুরুতে বলা হয়…সব চরিত্র কাল্পনিক।

এমনটা তো হরহামেশা আমরা দেখছি।

তার মানে কী…কাল্পনিক চরিত্রগুলো

সেগুলো তো কারো কল্পনাপ্রসূত।

জীবনের গল্পে আমরা-ও কি কাল্পনিক?

…ধূর…সত্যি সত্যিই মাথায় গন্ডগোল…।

কবিতার লাশ

লাশকাটা ঘরে আজকাল

কবিতার কাঁটাছেড়া চলে।

অপ্রকাশিত কবিতাগুচ্ছ

সম্পাদনা করে এক ডোম।

 

কবিতার লাশে লাভ হয় বেশি

সে কথা জানে চতুর বণিক।

স্বত্ব ছাড়লে কবিতায় মেলে

সহজ শর্তে শূন্য সুদে ঋণ।

 

কবিতার চেম্বার অব কমার্সে

জমে ওঠে কবিতার স্মরণসভা।

কেনা কবিতার লাশে আত্মরতিতে

মেতে ওঠে কতিপয় বণিক কবি।

 

ওদিকে লাশঘরে অন্ধকবি খুঁজে

বেড়ায় নিখোঁজ কবিতার লাশ।

 

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন [email protected]