হাসপাতালে লোকসঙ্গীত শিল্পী কাঙ্গালিনী সুফিয়া

সজল ঘোষ: লোকসংগীত শিল্পী কাঙ্গালিনী সুফিয়া হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় নিজ বাসায় তিনি অসুস্থ হলে রাত ৮টায় সাভারের এনাম মেডিকেল হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়।
গুণী এই শিল্পীর অসুস্থতার খবর জানতে চাইলে তার বড় মেয়ে পুষ্প বলেন, মা এখন কথা বলতে পারছেন না। চিকিৎসকরা মায়ের কিডনি এবং হার্টের সমস্যার কথা বলছেন। কিন্তু এ সমস্যাগুলো মায়ের এতোদিন ছিলো না। সমস্যা ছিলো মাথায়। এখন বয়স্কজনিত বিভিন্ন সমস্যাই দেখা দিচ্ছে। কি করবো, কিছুই বুঝতে পারছি না।

তিনি আরও বলেন, দু’দিন ধরেই আমরা পরিবারের চার-পাঁচজন লোক মায়ের সঙ্গে আছি। হাসপাতাল থেকে খাবার দেওয়ার নিয়ম না থাকায় বাইরে থেকে কিনে খেতে হচ্ছে। যা আমাদের জন্য খুবই কষ্টকর। পরিস্থিতির শিকার হয়ে কথাগুলো বলতে বাধ্য হচ্ছি।

‘কোন বা পথে নিতাইগঞ্জে যাই’, ‘পরাণের বান্ধব রে, বুড়ি হইলাম তোর কারণে’, ‘নারীর কাছে কেউ যায় না’, ‘আমার ভাঁটি গাঙের নাইয়া প্রভৃতি গানের মাধ্যমে মাটি-মানুষের মন জয় করেন কাঙ্গালিনী সুফিয়া।

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সাবেক ডিজি মুস্তাফা মনোয়ার তাকে কাঙ্গালিনী উপাধি দেন। তারপর থেকে সুফিয়া খাতুন বদল করে দেশব্যাপী কাঙ্গালিনী সুফিয়া নামে পরিচিত হন তিনি।

সংগীতে অসামান্য অবদানের জন্য ৩০টি জাতীয় ও ১০টি আন্তর্জাতিক পুরস্কার লাভ করেন গুণী এই লোকসংগীত শিল্পী।