গরমে আরামের ইফতার

রোজা চলছে। তার সঙ্গে পাল্লা দিচ্ছে যেন অসহনীয় গরম। এই গরমে সারা দিন রোজা রাখার পর অবশ্যই আপনার ইফতারের তালিকা হতে হবে স্বাস্থ্যকর এবং আরামদায়ক। খুব বেশী ভারি খাবার অথবা ভাজাপোড়া এই বৈরী আবহাওয়ায় আপনার পাকস্থলীর জন্য সুখকর হবে না। তাই গরমের কথা মাথায় রেখেই প্রাণের বাংলার প্রচ্ছদ আয়োজন ইফতারের  রেসেপি। আপনাদের জন্য রেসেপিগুলো দিয়েছেন আমাদের হেঁসেলের নিয়মিত রন্ধনশিল্পী দিলরুবা বেগম, নাজিয়া ফারহানা শান্তা ও অসিত কর্মকার সুজন।

দিলরুবা বেগম

লেবুপাতায় চিড়া পানি

লেবুপাতায় চিড়া পানি

উপকরণ:

 চিড়া ১/২ কাপ ভেজানো , ডাবের পানি ২কাপ (ঠান্ডা) ,লবণ স্বাদমতো , লেবুর রস ১ টেবিল চামচ , লেবু পাতা ১ টা ,টালা মরিচ গুড়ো ১/৪ চামচ , জিরা ভাজা গুড়া ১/৪ চাচামচ ,

প্রণালী:

চিড়ার পানি ফেলে ডাবের পানি ও বাকী সব উপকরণ মিশিয়ে ব্লেন্ড করে পরিবেশন করুন ।

তোকমার ঠান্ডাই

তোকমার ঠান্ডাই

উপকরণ:

তোকমা ২ টেবিল চামচ , ঠান্ডা পানি ২ কাপ , বরফ কুচি পরিমাণ মতো , লেবুর রস ১টেবিল চামচ , লবণ স্বাদমতো , টকদই ১/২ কাপ , পাকা আমের রস ১/২ কাপ , চিনি ১/২ কাপ ।

প্রণালী:

তোকমা ধুয়ে ভিজিয়ে রাখুন ১ ঘন্টা । এবার সব উপকরণ এক সঙ্গে মিশিয়ে পরিবেশন করুন ।

রুজট পাতার বড়া ( সিলেটী খাবার )

রুজট পাতার বড়া ( সিলেটী খাবার )

উপকরণ:

 রুজট পাতা কুচি ১ কাপ , মুসুরের ডাল বাটা ১ কাপ , চালের গুড়ী ৪ টেবিল চামচ , পিয়াজ কুচি ১/২ কাপ , মরিচ কুচি ৪/৫ টা , হলুদ গুরো ১ চাচামচ , আদা বাটা ১ চাচামচ , রসুন বাটা ১/২ চা চামচ , লবণ স্বাদ্মতো , তেল ভাজার জন্য ।

প্রণালী:

 সব উপকরণ এক সঙ্গে মেখে রাখুন ২০ মিনিট । এবার গরম তেলে ভেজে পরিবেশন করুন ।

আলুর খুলখুলি

আলুর খুলখুলি

উপকরণ:

স্বেদ্ধ আলু ৪ট আ ( ম্যাশ করা ) , পাউরুটি ৩ পিস , ডিম ১/২ টা , মরিচ গুড়ো ১ চা চামচ , কালো জিরে ১/২ চা চামচ , ধনেপাতা কুচি ২ টেবিল চামচ , গরম্মশলা গুড় আ১/২ চা চামচ , লবণ স্বাদমতো ,তেল ভাজার জন্যে ।

প্রণালী:

পাউরুটি পানিতে ভিজিয়ে চিপে নিন । এবার সব উপকরণ ভালো করে মেখে খুলখুলি আকারে গড়ে গরম তেলে ভেজে পরিবেশন করুন ।

নাজিয়া ফারহানা শান্তা

ফ্রুট সাসলিক

ফ্রুট সাসলিক

উপকরণ:

১ কাপ তরমুজ,১ কাপ আঙ্গুর ১ কাপ আনারস,১/২ কাপ লেবুর রস,চাট মশলা সামান্য।

প্রণালী:

১। সবগুলো ফল ভালো করে ধুয়ে খোসা ছাড়িয়ে কেটে নিন।

২। মিক্সিং বোলে ফলগুলোর সঙ্গে লেবুর রস ও চাট মশলা দিয়ে দিন।

৩। ঠান্ডা পছন্দ করলে এই মিশ্রণটি ফ্রিজে রেখে দিন ৩০ মিনিট।

৪। সাসলিক কাঠিতে গেঁথে পরিবেশন করুন।

ওটস খিচুরী

ওটস খিচুরী

উপকরণ:

ওটস (Oats) ১/২ কাপ, গরম পানি ১/২ কাপ, ইচ্ছামত যে কোন সবজি ১/২ কাপ, ধনে পাতা কুচি ইচ্ছা মত, রান্না করা মাছ বা মুরগীর মাংস ১ টুকরা

 হলুদ গুঁড়ো ১/৪ চা চামচ, পেঁয়াজ ও কাঁচা মরিচ কুচি খানিকটা, মরিচ গুঁড়ো ও লবণ স্বাদ মত, ধনে গুঁড়ো সামান্য, ভাজা জিরা গুঁড়ো সামান্য, অলিভ ওয়েল সামান্য, মিহি রসুন কচি ১ চা চামচ, আদা বাটা সামান্য।

 প্রণালী:

 শুকনো প্যানে ওটসগুলোকে (Oats) ৫ মিনিট ভেজে নিন। তারপর ঠাণ্ডা করে নিন।

 প্যানে তেল দিয়ে রসুন কুচি ভেজে নিন।। তারপর পেঁয়াজ ও কাঁচামরিচ দিয়ে ভাজুন।

 পেঁয়াজ একটু নরম হলে সবজিগুলো দিয়ে দিন। তারপর সব মশলা ও লবণ দিয়ে ভাজুন।

 ভালো করে ভাজা হলে ওটসগুলো (Oats) দিয়ে দিন। মাংস বা মাছ দিন। ভালো করে মিশিয়ে পানি দিয়ে দিন।

 এবার ঢাকনা দিয়ে রান্না করুন পানি শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত। পানি শুকালে ভাজা ভাজা করে ধনে পাতা ছিটিয়ে নামিয়ে নিন। তারপর মনের মত করে সাজিয়ে পরিবেশন করুন “ডায়েট ওটস (Oats) খিচুড়ি”।

মিক্স চাট

মিক্স চাট

উপকরনঃ

দুই প্রকার ডাল -১ কাপ করে ( রাজমা লাল ওসাদা),লেবুর রস – ৪ চা চামচ,মিহি চিনি – ২ টেবিল চামচ,শশা টুকরা  ১ কাপ,টমেটো টুকরা ১ কাপ

চাট মশলা সামান্য,গাজর টুকরা ১ কাপ,    পেস্তা, চিনা, কাজু  বাদাম – ১ মুঠো।

প্রণালী:

লেবুর রস ও চিনি মিশিয়ে নিয়ে বিশ মিনিট ঢেকে রেখে দিন, বিশ মিনিট পর সব নরম হয়ে যাবে। এবার উপরে চাট মশলা ছিটিয়ে পরিবেশন করি।

 

চিকেন মোমো

চিকেন মোমো

উপকরন:

 চিকেন কিমা -১কাপ,২.ময়দা-১কাপ,আদা বাটা-১/৪ চা চামচ, রসুন বাটা-১/৪ চা চামচ,গোল মরিচ গুরা-১/৪ চা চামচ, সয়া সস -১ চা চামচ, পিয়াজ বাটা -১/২ চা চামচ, পানি -১/৪ কাপ, তেল -১ টেবিল চামচ, লবন – স্বাদ মতো।

প্রণালী:

প্রথমে ময়দা তেল আর লবন দিয়ে ভালো করে মাখতে হবে, ময়ান যত ভাল হবে মোমো তত নরম হবে  এই বার প্যানে তেল দিয়ে একটু গরম করে তাতে কিমা আর বাকি সব কিছু একে একে দিয়ে একটু নেড়ে নামাতে হবে।কিমাটা একটা বাটিতে ঢেলে ঠানডা করতে হবে। এইবার ময়দা মাখাটা দিয়ে লুচির মতো ছোট ছোট লেচি কেটে বেলতে হবে আর তার ভিতর একটু করে কিমার পুর দিয়ে মুখ বনধ করতে হবে। তারপর চুলাতে স্টিমারে পানি দিয়ে ফুটতে দিতে হবে। পানি ফুটে উঠলে তাতে মোমোগুলা সাজিয়ে ঢাকনা দিয়ে ১০/১২ মিনিট ভাপ দিতে হবে । ভাপ হয়ে গেলে প্লেটে সাজিয়ে গরম গরম সস বা চাটনি দিয়ে পরিবেশন করতে হবে এই মজাদার চিকেন মোমো।

অসিত কর্মকার সুজন

বিনা তেলে পঞ্চবাহার

বিনা তেলে পঞ্চবাহার

উপকরণ :
গাজর,আলু, ফুলকপি,মিষ্টি কুমড়ো প্রতিটি সবজি এক কাপ করে । সবজি গুলো সামান্য লবণ ও হলুদ দিয়ে মেখে ভেজে রাখা এবং মটরশুঁটি আধা কাপ গরম পানিতে স্বেদ্ধ করে রাখা , সরষে বাটা এক চা চামচ , কাঁচামরিচ বাটা এক চা চামচ, হলুদ পরিমাণমতো, টক দই ১ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো, কাজু ও পেস্তা বাটা ২ টেবিল চামচ , নারকেল বাটা ২ টেবিল চামচ ও পানি দুইকাপ ।

প্রণালী :
প্যানে সরষে বাটা, মরিচ বাটা অল্প পানি দিয়ে কষিয়ে লবণ,কাজু ও পেস্তা বাদাম বাটা , হলুদ দিন। এবার আস্তে আস্তে আগে থেকে স্বেদ্ধ করে রাখা সবজি বিছিয়ে দিন। এরপর অল্প আঁচে ঢেকে রান্না করুন। মাখা মাখা হলে মটরশুঁটি ও টক দই দিয়ে নামিয়ে কাঁচামরিচ দিয়ে সাজিয়ে ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

আমের শরবত

আমের শরবতঃ

উপকরণঃ

পাঁচটি ল্যাংড়া আম, ৪০০ গ্রাম টক দই, ২০০ গ্রাম ডানো ক্রিম, ১টি কনডেন্স মিল্ক, পেস্তা বাদাম।

প্রণালী :

প্রথমে আমগুলো ভালোভাবে পরিষ্কার করে টুকরো টুকরো করে কেটে নিন। এরপর ব্লেন্ডারে আমের টুকরো, টক দই, কনডেন্স মিল্ক এবং ডানো ক্রিম দিয়ে ব্লেন্ডার চালু করে দিন । এরপর গ্লাসে নিয়ে ওপরে পেস্তাবাদামগুলো সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

লেবুর শরবত

লেবুর শরবতঃ

উপকরণঃ

ফ্রেশ লেবু, বিট লবণ, চিনি, গোলমরিচ, পুদিনা,পাতা, ফ্রিজের ঠাণ্ডা পানি।

প্রণালী :

প্রথমে লেবুগুলো ভালোভাবে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন। এরপর লেবুগুলো কেটে রস বের করে নিন। একটি জগে ঠাণ্ডা পানির মধ্যে রসগুলো নিয়ে নিন। পরিমাণ মতো বিট লবণ, গোলমরিচ এবং চিনি মিশিয়ে নিন। এরপর পুদিনা পাতা দিয়ে পরিবেশন করুন।

তরমুজের শরবতঃ

উপকরণঃ

৫০০ গ্রামের একটি তরমুজ, ১৫ গ্রাম আদা, ১৫ মিলি লেবুর রস, লবণ পরিমান অনুযায়ী, চিনি পরিমান অনুযায়ী, ৩০০ মিলি পানি।

প্রণালী :

প্রথমে তরমুজ ভালোভাবে পরিষ্কার করে টুকরো টুকরো করে কেটে নিন। আদাগুলো বেটে নিন। এরপর ব্লেন্ডারে পানি দিয়ে তরমুজ, আদা, লেবুর রস, চিনি এবং লবন পরিমানমত দিয়ে ব্লেন্ডার চালু করে দিন। এরপর সেগুলো গ্লাসে করে পরিবেশন করুন।

স্ট্রবেরি শরবত

স্ট্রবেরি শরবতঃ 

উপকরণঃ 

 ৪টি স্ট্রবেরি. পরিমানমত দুধ, ২০ মিলিগ্রাম চিনি।

প্রণালী :

 প্রথমে ব্লেন্ডারে দুধটুকু নিয়ে নিন। এবার স্ট্রবেরি এবং চিনি দিয়ে ব্লেন্ডার চালু করে দিন। এরপর চাইলে কিছুক্ষণ ফ্রিজে রাখতে পারেন। ঠাণ্ডা হয়ে গেলে গ্লাসে নিয়ে পরিবেশন করুন।

কমলার শরবত

কমলার শরবতঃ

উপকরণঃ

৫ টি কমলা, ২ টেবিল চামচ চিনি, ১২০ মিলি পানি।

প্রণালী :

প্রথমে কমলাগুলো ধুয়ে ছিলে নিন। এরপর ব্লেন্ডারে চিনি এবং পানি দিয়ে একসাথে মিশিয়ে নিন। কমলার কোয়াগুলো ব্লেন্ডারে দিয়ে ব্লেন্ডার চালু করে দিন। এরপর একটি ছাকনি দিয়ে ছেকে গ্লাসে করে পরিবেশন করুন।