প্রতিশোধ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আহসান শামীম

শুরুটা হয়েছিল যেমন, বাংলাদেশের সমর্থকরা তাতে নড়েচড়ে বসেছিলেন।বোধ হয় বড় স্কোরই গড়তে যাচ্ছে বাংলাদেশ।শুরুর সাথে শেষের মিল পাওয়া গেল না।শুরুর ছন্দ শেষ পর্যন্ত ধরে না রাখতে পারার আক্ষেপ, বাংলাদেশের বোলিং দূর্বলতার সুযোগ কাজে লাগিয়ে সিরিজ সমতায় ফেরে রোহিত শর্মার ভারত।বাংলাদেশর দেওয়া ১৫৪ রানের জয়ের লক্ষ্যে ভারত পৌঁছে যায় ২৬ বল হাতে রেখে।জয় পায় ৮ উইকেটে।

আজ রাজকোর্টে প্রথম ভারতীয় ক্রিকেটার হিসেবে ১০০ আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলার গৌরব অর্জন করেন রোহিত শর্মা।দিল্লির ম্যাচেই ধোনিকে টপকে ভারতের হয়ে সবচেয়ে বেশি টি-টোয়েন্টি খেলার রেকর্ড গড়েন তিনি।১০০ আন্তর্জাতিক টি-টুয়েন্টিকে নিজেই রাঙ্গিন করে তোলেন ব্যাট হাতে রোহিত শর্মা । মাত্র ৪২ বলে ৮৫ রান করে ম্যাচ সেরা হন রোহিত শর্মা।

ঘুরে দাঁড়ানোর ম্যাচে টস ভাগ্যটা ভারত নিজের করে নেয়।রাজকোর্টের উইকেটে টস জিতে তাই রোহিত শর্মা ফিল্ডিং এর সির্ধান্ত নিতে দেরী করলেন না।ব্যাট হাতে বাংলাদেশের উদ্ধোধনী জুটি লিটন -নাঈমও কম গেলেন না।দুইবার জীবন পাওয়ার পরও লিটন বির্সজন দিয়ে এলেন নিজের উইকেট।ভারতের ফিল্ডিং দূর্বলতার সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যার্থ হওয়ার বড় ধরনের টার্গেট দিতে পারেনি বাংলাদেশ।ভারতীয় লেগ স্পিনার চেহেলার তৃতীয় ওভারের প্রথম বলে মুশফিক আর শেষ বলে সৌম্য সরকারকে সাজঘরে ফেরানোর পর, বাংলাদেশ শিবিরের খেলোয়াড়দের অস্থিরতা সুযোগ কাজে লাগায় ভারতীয় বোলারা।১৫৩ রানে ছয় উইকেটে থামে বাংলাদেশের ইনিংস।

ভারতের দুই স্পিনার ওয়াশিংটন সুন্দর ও যুজভেন্দ্র চেহেলই রাশ টেনে ধরেন বাংলাদেশের ইনিংসের। এই দুইজন বোলার ৮ ওভার বল করে ৫৩ রান দিয়ে তুলে নেন ৩ উইকেট। পেসার চাহারও তাঁর চার ওভার থেকে দেন মাত্র ২৫ রান।বাংলাদেশ প্রথম দশ ওভারে ৭৩ রানে ১ উইকেট হারায় আর শেষ দশ ওভারে ৮০ রানে হারায় ৫ উইকেট।

বাংলাদেশের আমিনুল ভারতের ১১৮ রানের ওপেনিং জুটি ভাঙ্গেন ২৭ বলে ৩৩ রান করা শেখর ধাওয়ান কে সাজঘরে ফিরিয়ে।এটাই টি-টুয়েন্টিতে বাংলাদেশর বিপক্ষে ভারতে সর্বোচ্চ উদ্বোধনী জুটির রেকর্ড।নিজের পরের ওভারেই আমিনুল সাজঘরে ফেরান রোহিত শর্মাকে। ততক্ষনে অবশ্য অন্য বাংলাদেশী বোলারদের ব্যার্থতায় ম্যাচ বাংলাদেশের হাতছাড়া হয়ে যায়।সিরিজের জয় পরাজয় এখন ১০ নভেম্বরের শেষ ম্যাচে নাগপুরে নির্ধারণ হবে।

ছবিঃ গুগল

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন [email protected]