পুরষ্কার লেখকের দায়িত্ব বাড়িয়ে দেয়। -মাসুম রেজা

আমাদের মঞ্চ নাটক সবসময় মানুষের কথা বলে। নাটকের সংলাপ, উপস্থাপনার মাঝে শানিত চিন্তার উপস্থিতি সবসময়ই চোখে পড়ে।বাংলাদেশে সবসময় ভালো নাটক হয়েছে, এখনও হচ্ছে।
কথাগুলো বললেন দেশের খ্যাতিমান নাট্যকার ও নির্দেশক মাসুম রেজা। এ বছর বাংলা একাডেমী থেকে নাটক বিভাগে পুরষ্কার পেয়েছেন তিনি। ফোন করেছিলাম তাকে অভিনন্দন জানাতে। অভিনন্দন আর আনন্দের রেশ কাটিয়ে আমাদের কথা আরও কিছুদূর এগিয়ে গেল।
মাসুম রেজা জানালেন, এই পুরষ্কার প্রাপ্তি তার মনের মধ্যে আনন্দের অনুভূতির পাশাপাশি চাপও তৈরী করেছে। ভালো কাজ করার চাপ। কারণ পুরষ্কার সবসময়   দায়িত্ব বোধ বাড়িয়ে দেয়। পুরষ্কার মানে তো স্বীকৃতি। একজন লেখক এই স্বীকৃতি পেলে তার ভেতরে দর্শকের প্রতি, পাঠকের প্রতি আরও গভীর কমিটমেন্ট তৈরী হয়।
মাসুম রেজার জন্মস্থান দেশের কুষ্টিয়া জেলায়। লেখাপড়া করেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে। নাটক লেখার শুরু সেখান থেকেই। ৮০‘র দশকে এরশাদের সামরিক স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে একজন রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে তিনি যুক্ত ছিলেন। তখন থেকেই নাট্য চর্চার শুরু।
আমাদের কথা চলছিল কমিটমেন্ট নিয়ে। একজন লেখকের কমিটমেন্ট। মাসুম রেজা বলেন, আমি সবসময় আমার লেখার মধ্যে দিয়ে মানুষের কথা বলার চেষ্টা করে চলেছি। মানুষের ভেতরে যে অবিরাম ভাঙ্গাগড়া চলছে তাকেই নিজের লেখায় তুলে ধরার চেষ্টা করি। একজন মানুষ নানা ধরণের আচরণ করে। আমি সেই আচরণের কারণ অনুসন্ধানের চেষ্টায় নিযুক্ত আছি।
বাংলাদেশের সাম্প্রতিক নাটক নিয়ে কথা হলো তার সঙ্গে। তিনি মনে করেন, গত কয়েক বছরে নাটক অথবা নাটকের চর্চা নতুন পথে হাঁটছে। অনেক ভালো নাটকের মঞ্চায়ন হচ্ছে। নাটকে নতুন প্রাণ সঞ্চার হয়েছে। অনেক ভালো ভালো নাট্যকার নাটক লিখছেন।তারা চেষ্টা করছেন নাটককে দর্শকের কাছে নিয়ে যেতে।
অনেকে অভিযোগ করেন, অনেক ভালো নাটক নির্মিত হলেও দর্শক কমে যাচ্ছে। এর কারণ কী? একটু ভেবে উত্তরটা দিলেন এই খ্যাতিমান নাট্যকার। তিনি মনে করেন, নাটকের দর্শক কম হওয়ার পেছনে রাজধানীর তীব্র যানজট একটি বড় কারণ। অনেক মানুষ আছেন যারা নাটক দেখতে চান। কিন্তু রাস্তার দুর্ভোগের কথা ভেবে তারা পিছিয়ে যান। এর একটি সমাধান প্রয়োজন।
এক সময় নিত্যপুরাণ, আরজ চরিতামৃত, জল বালিকা, শামুকবাসের মতো নাটক লিখে হৈ চৈ ফেলে দিয়েছিলেন মাসুম রেজা। এখন তার লেখা সুরগাঁও নামে আরেকটি নতুন নাটকের মহড়া চলছে। নাটকটি অচিরেই মঞ্চে আসবে। পাশাপাশি আরেকটি নাটকের স্ক্রিপ্টের কাজ চলছে।
ফলিত পদার্থ বিজ্ঞানের ছাত্র মাসুম রেজা মনে করেন, নাটক বিষয়টি সাধনার ব্যাপার। নিরন্তর কাজ করে যাওয়া ছাড়া এখানে বিকল্প কোন পথ খোলা নেই।ভালো কাজ একজন নাট্যকারের জন্য অবশ্যই স্বীকৃতি বয়ে নিয়ে আসবে।
সাক্ষাৎকার-ইরাজ আহমেদ