কোচ নিয়ে আলোচনা চলছে গোপনে

আহসান শামীমঃ ক্রিকেট দলের হেড কোচ নির্বাচনে এখনো কোনো সিদ্ধান্তে আসতে পারেনি বিসিবি। বিসিবির পছন্দনীয় কোচের ছোটো তালিকায় বেশ কয়েকজনের নাম আছে। সবার উপরের দিকে কদিন আগেই ছিলেন ইংলিশ বংশোদ্ভূত দক্ষিণ আফ্রিকান কোচ রিচার্ড পাইবাসের নাম।অন্যদিকে রিচার্ড পাইবাসকে নিয়ে মাশরাফি-সাকিবদের নেতিবাচক মনোভাব থাকায় তাকে নিয়ে এখনই মাথা ঘামাচ্ছে না বিসিবি।এরপর দুজন হাইপ্রোফাইল কোচের সন্ধান পেয়েছে বিসিবি। তাদেরই একজন ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকা জাতীয় দলের সাবেক কোচ গ্যারি কারস্টেন।তাঁর পারিশ্রমিক গিয়ে দাঁড়াতে পারে মাসিক ৫০ হাজার ডলারে। পাঁচ হাজার ডলার কমিয়ে ৪৫ হাজার ডলারে আসতে রাজি তিনি।আর গ্যারি কারস্টেনের দ্বিতীয় শর্ত হলো শুধু সিরিজ চলাকালীন কাজ করবেন।আর এই দুই বিষয় নিয়েই দুই পক্ষের আলাপ আলোচনা চলছে।এই প্রসঙ্গে সম্প্রতি বিসিবি সাভাপতি নাজমুল হাসান জানিয়েছেন,’কোচ হিসেবে বেশ কয়েকজনের নাম পেয়েছি আমরা। এর মধ্য থেকে একটা ছোট তালিকা করেছি।

ক্যারাবীয়ান অলরাউন্ডার কোচ সিমেন্সের বিষয়টাও দরকষাকষির পর্যায়। ব্যাটিং কোচের বিষয় বিসিবি’র আগ্রহ বরাবরই কম।ফিল্ডিং কোচ বা হেড কোচের দায়িত্ব জন্টি রোডর্সের সাথেও যোগাযোগ চলছে গোপনীয়তার বজায় রেখেই। এছাড়াও হাই পারফরমেন্সের আরও একজন কোচের সাথে বিসিবি যোগাযোগ রেখেছে। আলোচনাও চলছে তবে সবই গোপনে ।

অন্যদিকে আগামী চার বছরে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশ একটা টেস্ট ম্যাচও খেলবে না। শুধু সেটাই না , নবাগত আফগানিস্তান ও আয়ারল্যান্ডের সঙ্গেও নাই কোন টেষ্ট খেলা।অবশ্য ক্রিকইনফোর তথ্য অনুযায়ী প্রস্তাবিত নতুন এফটিপি ( ২০১৯ – ২০২৩) ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও ভারত পরেই বাংলাদেশের অবস্থান।সেই হিসেবে আগামী ৪ বছরে এই তিন দল ছাড়া বাকি সব দল থেকে টেস্ট ম্যাচ বেশী খেলবে বাংলাদেশ।এই চার বছরে বাংলাদেশের ৩৫ টা টেস্ট ছাড়াও ওডিআই ৪৫ টা ও টি টুয়েন্টি ৪২ টা। ‘বিগ থ্রি’ এর পর সবচেয়ে বেশি টেস্ট টাইগারদের।

বিপিএল শেষে বাংলাদেশকে এমনই খবর দিল আইসিসি।

অবশ্য সার্বিকভাবে টেস্টের সংখ্যা কমানো হয়েছে নতুন এফটিপিতে। যেখানে আগের সূচিতে ( মে ২০১৪ থেকে মে ২০১৯) ছিল ২৩৮টি টেস্ট এবার নতুন সূচিতে (মে ২০১৯ থেকে মে ২০২৩) টেস্ট খেলা হবে ১৭৫টি! সেই সঙ্গে এবার যুক্ত হয়েছে আরও দুটি দল- আফগানিস্তান ও আয়ারল্যান্ড। এই সূচিতে অবশ্য টেস্ট লিগে জিম্বাবুয়েকে বাইরেই রাখা হয়েছে। কারণ আর্থিকভাবে দৈন্যদশায় থাকা এই বোর্ড সেভাবে টেস্ট খেলতে আগ্রহী নয়।

ছবিঃ গুগল