বছর শেষে ভাঙ্গলো মাইলস

কয়েক মাস ধরে মাইলসের হয়ে কোনো শোতে দেখা যায়নি ব্যান্ডটির অন্যতম সদস্য শাফিন আহমেদকে। তবে গানের এই দলটির অন্য সদস্যরা শ্রোতাদের কাছে দেওয়া প্রতিশ্রুতি ঠিকই রক্ষা করে চলছেন। আর এসব নিয়ে গত কিছুদিন ধরেই ভেসে বেড়াচ্ছিলো নানা গুঞ্জন, ভেঙ্গে যাচ্ছে বাংলাদেশের ৩৬ বছরের পুরনো ব্যান্ড মাইলস।

গত বুধবার ঢাকায় এক সংবাদ সম্মেলন করে ব্যান্ডটির অন্যতম সদস্য শাফিন আহমেদ গুঞ্জন প্রকাশ্যে নিয়ে এলেন। এই ব্যান্ডের সঙ্গে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের অর্থনৈতিক লেনদেনের স্বচ্ছতা আনতে মাইলস লিমিটেড কোম্পানি নামে চালু করতে বাধ্য হন শাফিন আহমেদ। সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই দাবি করছেন তিনি।

এদিকে গানের দল মাইলসের অনুপস্থিতি নিয়ে সম্প্রতি শাফিন আহমেদ মুখ খোলার পর ব্যান্ডের অন্য সদস্যরাও নিজেদের অবস্থান ব্যাখ্যা করেন। হামিন আহমেদ, মানাম আহমেদ, তূর্য আর জুয়েলের বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে ভক্ত-শ্রোতাদের কাছে নিজের অবস্থান তুলে ধরার জন্য সংবাদ সম্মেলন করাকে যুক্তিসংগত মনে করেছেন বলে জানান শাফিন আহমেদ।

শাফিন আহেমদ বলেন, ‘এ বছর এপ্রিল থেকে মাইলস ব্যান্ডের অন্য সদস্যদের সঙ্গে দ্বন্দ্বের সূত্রপাত। মূলত গানের রয়্যালটি নিয়ে হামিন আহমেদের সঙ্গে আলাপ করতে গেলে সম্পর্কের দূরত্ব তৈরি হয়। তিনি একাই ছয়টি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি সই করেন, যা একটা ব্যান্ডে কেউ এককভাবে করতে পারেন না। এই সমস্যা সমাধানের কথা বললে বিষয়টি বারবার এড়িয়ে যাওয়া হয়। মূলত এ কারণে নিজেকে দূরে সরিয়ে নিই।’

এদিকে সম্প্রতি ‘মাইলস’ নাম ব্যবহার না করার জন্য দলের অন্য সদস্যদের কাছে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন শাফিন আহমেদ। আইনজীবী মোস্তফা জামাল পাশা এই নোটিশ ইস্যু করেন। যদিও সেখানে অভিযুক্ত কারও নাম উল্লেখ করা হয়নি।

শাফিন আহমেদ জানান, ব্যান্ডের অন্য সদস্যদের সঙ্গে মতবিরোধের কারণে তিনি প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে ১৭ নভেম্বর মাইলস লিমিটেড কোম্পানি নামে নিবন্ধন করে নেন। সরকারি নিবন্ধন হিসাবে ৩৬ বছরের মাইলস ব্যান্ডের বয়স আজ ১ মাস ২ দিন। তবে নিবন্ধনের আগে ব্যান্ডের অন্য সদস্যদের সঙ্গে কথা বলার কথা জিজ্ঞেস করলে শাফিন বলেন, ‘যাঁরা আমার সঙ্গে এমনটা করেছেন, তাঁদের সঙ্গে এসব নিয়ে কথা বলার কোনো প্রয়োজন মনে করার কারণ দেখছি না।’

সংবাদ সম্মেলনে শাফিন আরও জানান, এখন থেকে তিনি ছাড়া কেউ মাইলস নামে ব্যান্ডের কার্যক্রম চালাতে পারবে না।

বিনোদন ডেস্ক

তথ্যসূত্রঃ ইন্টারনেট

ছবিঃ ফেসবুক