সেই ব্রুকশিল্ড

ব্রুকশিল্ডকে প্রায় ভুলেই গিয়েছে শো বিজ দুনিয়া। একদা ‘ব্লু লেগুন’ সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে এই মডেল সারা দুনিয়ায় ঝড় তুলেছিলেন। এক অজানা দ্বীপে এক কিশোরী মেয়ের ভালোবাসার গল্প ব্রুকশিল্ডকে একটানে তুলে এনেছিলো আলোচনার শীর্ষে। ব্রুকের উত্তাপ ছড়ানো খোলামেলা শরীর আশির দশকে গরম হাওয়া বইয়ে দিয়েছিলো হলিউডে। তখন কেলভিন ক্লেইন নামে বিখ্যাত জিন্স কোম্পানী থেকে শুরু করে পারফিউম- সব ধরণের পণ্যে দেখা মিলতো এই কিশোরীর মুখ। বিখ্যাত ‘টাইম’ পত্রিকার প্রচ্ছদেও স্থান পেয়েছিলেন ব্রুকশিল্ড।

সেই ব্রুকশিল্ড অনেকদিন পর আবার ফিরে এলেন ক্যামেরার সামনে। ‘হেলথ’ নামে একটি স্বাস্থ্য-কথা ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদ কন্যা হয়ে ছবি তুললেন। ব্রুকশিল্ড এ বছর পা রেখেছেন ৫২ বছরে।

কিন্তু ছবিতে ব্রুকশিল্ডকে দেখলেই বোঝা যায় সেই ঝাঁঝালো আবেদনময় শরীর ধরে রেখেছেন এখনো। আর তার এই স্বাস্থ্য-কথার গোপন রহস্য হচ্ছে নিয়মিত ব্যয়াম। এমনটাই বললেন ব্রুক সাংবাদিকদের কাছে। এক প্রশ্নের জবাবে বললেন, নিরাপত্তাহীনতা বোধই মানুষকে অসুখী করে তোলে। ‘ব্লু লেগুন’ সিনেমায় অভিনয়ের পর বেশ কয়েকটি সাড়া জাগানো টিভি ধারাবাহিকে অভিনয় করে নিজের অভিনয় ক্ষমতার প্রমাণ রাখেন এ মডেল-অভিনেত্রী। ধারাবাহিকগুলোর মধ্যে ছিলো, ‘সাডেনলি সুজান’, ‘লিপস্টিক জাঙ্গাল’। একদা ব্রুকিশিল্ড লিখে ফেলেন আত্নজীবনী ‘দেয়ার ওয়াজ এ লিটিল গার্ল’। বইটি তার ভক্ত মহলে দারুন সাড়া জাগায়। ব্যয়ামের পাশাপাশি খাবারের মেন্যুতেও পরিবর্তন এনেছেন এই অভিনেত্রী। ছেড়ে দিয়েছেন প্রিয় চকলেট আর কফি পান। বাড়িয়ে দিয়েছেন পানি পান করার পরিমাণ।

বিনোদন ডেস্ক

তথ্যসূত্র ও ছবিঃ হেলথ ম্যাগাজিন