টাইম ইজ আপ

হলিউডের একদল নারী পরিচালক ও অভিনেত্রী এবার একজোট হচ্ছেন যৌন নিপীড়নের বিরুদ্ধে। তারা গত সপ্তাহে ‘টাইম ইজ আপ’ নামে একটি সংগঠনের ব্যনারে বেশ জোরেশোরেই নিজেদের উপস্থিতির কথা ঘোষণা করলেন তারা।

নিউ ইয়র্ক টাইমস পত্রিকায় খবরটি প্রকাশিত হবার পর বেশ হৈচৈ পড়ে গেছে চারদিকে। গত অক্টোবর মাসে হলিউডের সমালোচিত মুভি মোঘল হার্ভে ওয়েনেস্টাইনের বিরুদ্ধে বেশ কয়েকজন অভিনেত্রী প্রকাশ্যে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ করলে গোটা পৃথিবীর বিনোদন জগত নড়েচড়ে বসে। শুরু হয় আলোচনা, সমালোচনা।

‘টাইম ইজ আপ’ সংগঠনটি যাত্রা শুরু করলো এক হাজার সদস্য নিয়ে। এদের মধ্যে আছে, পরিচালক আভা ডু ভ্যারানি, প্রযোজক ক্যাথেলিন কেনেডি, অভিনেত্রী আমেরিকা ফেরেরা, এমা স্টোন, কনস্ট্যানসি উউ। সংগঠনটি প্রাথমিত ভাবে তাদের তহবিল হিসেবে জোগাড় করেছে ১৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। সংগঠনের জন্য অর্থ সাহায্য নিয়ে এগিয়ে এসেছেন, অপরা উইনফ্রে, অভিনেত্রী মেরিল স্ট্রিপ, পরিচালক স্টিভেন স্পিলবার্গ এবং কেটি ক্যাপস। হলিউডের ক্রিয়েটিভ আর্টিস্ট এজেন্সি, ইউনাইটেড ট্যলেন্ট এজেন্সী আলাদা ভাবে দান করেছে ১ মিলিয়ন ডলার।

সংগঠনের মূল লক্ষ্য হচ্ছে বিনোদন জগতে কাজ করা নারীদের সমঅধিকার নিয়ে লড়াই করা। পাশাপাশি তারা অন্যান্য জায়গায় যৌন নিপীড়ন ও অধিকারের প্রশ্ন নিয়ে লড়তে থাকা সকল নারীর পাশে দাঁড়াতে আগ্রহী। তারা বলেন, যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছে এমন সব নারী এমনকি পুরুষের জন্যও তারা কাজ করতে চান। মূলত তাদের সাহায্যের জন্যই সংগঠনের তহবিলকে শক্তিশালী করা হচ্ছে।

সাংগঠনিক ভাবে ‘টাইম ইজ আপ’-এর একক কোন নেতৃত্ব নেই। ছোট ছোট গ্রুপে বিভক্ত হয়ে তারা নানা ধরণের সংকট মোকাবেলা করার চেষ্টা করবে।

প্রাণের বাংলা ডেস্ক

তথ্যসূত্রঃ সিএনএন

ছবিঃ গুগল