এই শীতে বাতাসি, ইলিশ…

অসিত কর্মকার সুজন

শীতে গরম ভাতের সঙ্গে মাছের স্বাদই অন্যরকম।তবে রান্নাটা হতে হবে একটু ভিন্ন ভাবে।তাহলেই কব্জী ডুবিয়ে খাওয়া যাবে । এবারে আমাদের হেঁশেলে এমনি কিছু মাছের রেসেপি দিয়েছেন  রন্ধনশিল্পী অসিত কর্মকার সুজন। ইচ্ছে হলে আপনি আজই তৈরী করে ফেলতে পারেন বাতাসি, ইলিশ,বাইন,পাবদার যে কোন পদ।

 

বাতাসি মাছের ঝাল

বাতাসি মাছের ঝাল 

উপকরণ  :

বাতাসি মাছ ২৫০ গ্রাম , টমেটো ১ টি (লম্বা করে চিড় করা) ,পিঁয়াজ কুচি আধা কাপ ,

হলুদের গুড়া  ১ চা চামচ, মরিচের গুড়া ২ চা চামচ ,ধনেপাতা কুচি  ১ টেবিল চামচ

তেল  আধা কাপ  ও লবণ পরিমাণ মত

প্রণালী :

কাঁচামরিচ, ধনেপাতা ও টমেটো বাদে বাকি সব উপকরণ একসাথে নিয়ে হাত দিয়ে প্রথমে মাখিয়ে নিন।এবার অল্প পানি দিয়ে ঢেকে রান্না করুন।সিদ্ধ হয়ে পানি কমে গেলে তাতে কাঁচামরিচ ও টমেটো দিন। পানি শুকিয়ে গেলে ধনেপাতা দিয়ে নামিয়ে নিন।

ইলিশের পানিখোলা

ইলিশের পানিখোলা 

উপকরণ :
ইলিশ মাছ ৪ টুকরা , পেঁয়াজ মিহি কুঁচি আধা কাপ , কাঁচামরিচ ২ টি, লবণ স্বাদ অনুযায়ী ও পানি দুই কাপ ।
প্রণালী : 
প্রথমে পেঁয়াজ কুঁচি লবণ দিয়ে ভালো করে মেখে পানি দিয়ে প্যানে দিতে  হবে । পানিতে বলক এলে তাতে মাছগুলো ছেড়ে দিয়ে সেদ্ধ না হওয়া পর্যন্ত রাখুন । নামানোর সময় কাঁচামরিচ দিয়ে নামিয়ে নিন  ।

মেটে আলু দিয়ে বাইন মাছ ভুনা

মেটে আলু দিয়ে বাইন মাছ ভুনা

উপকরণ :
বাইন মাছ ছোট ছোট করে কাটা ২৫০ গ্রাম , পেঁয়াজ কুঁচি  ১/২ কাপ, , আদাবাটা ১ চা চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ, জিরা গুঁড়া ১ চা চামচ  , ছোট করে কাটা মেটে আলু ১ কাপ, কাঁচামরিচ ৫-৬টি, লবণ স্বাদ অনুযায়ী,তেল পরিমাণ ২ টেবিল চামচ ।
প্রণালী :
প্রথমে মাছ করে ভালো করে লবণ দিয়ে ধুয়ে পরিষ্কার করে রাখুন। একটি কড়াইয়ে তেল গরম করে তাতে পেঁয়াজ কুঁচি দিয়ে ভাজা ভাজা করে একে একে সব গুঁড়া মশলা এবং লবণ দিয়ে মশলা কষিয়ে নিয়ে তাতে বাইন মাছের টুকরা এবং  মেটে আলু দিয়ে আবার কষিয়ে পরিমাণ মতো পানি, জিরা গুঁড়া এবং কাঁচামরিচ দিয়ে ভুনা ভুনা করে নামিয়ে গরম ভাতের সঙ্গে  পরিবেশন করুন ।

পোস্ত পাবদা

পোস্ত পাবদা 

উপকরণ :

মাছ ৬টা,  পোস্ত বাটা ২ টেবিল চামচ, কাঁচামরিচ বাটা ৩-৪টা, আদা বাটা ১ চা চামচ, কালোজিরে সামান্য, সরিষার তেল ৩ টেবিলচামচ,  হলুদ আধা চা চামচ , লবণ ও চিনি স্বাদমতো।

প্রণালী :

মাছ হলুদ লবণ মেখে হালকা করে ভেজে নিতে হবে। তেলে কালোজিরে ফোঁড়ন দিয়ে একে একে আদা, পোস্ত, কাঁচামরিচ বাটা ও হলুদ দিয়ে কষাতে হবে। মসলা কষানো হয়ে গেলে তেল উঠে এলে তাতে সামান্য পানি দিয়ে ফুটিয়ে মাছ ছেড়ে দিতে হবে। ঝোল মাখা মাখা হয়ে এলে সামান্য চিনি ও আস্ত কাঁচামরিচ ছেড়ে দিয়ে নামিয়ে নিতে হবে।