ওস্তাদ কাৎ শিষ্যদের মারে

আহসান শামীম

প্রচলিত কথাটা একটু ঘুরিয়ে বলা যেতে পারে, ‘শিষ্যের মার শেষ রাতে’। এবার ছাত্ররা হারিয়ে দিল ওস্তাদকেই। বাংলাদেশ হারালো হাতুড়াসিংহের দল শ্রীলঙ্কাকে।

টাইগার দলের হেড কোচের পদ থেকে পদত্যাগ করে কোচ হাথুরোসিংহে দায়িত্ব নেন শ্রীলংকা ক্রিকেট দলের। প্রথম পরীক্ষা দিতে তিনি শ্রীলংকা দল নিয়ে ত্রিদেশীয় কাপ খেলতে ঢাকায় এসেছেন। প্রথমে জিম্বাবুয়ের কাছে হারের পর আজ সম্মানের ম্যাচে ২৭.৪ ওভার বাকী থাকতেই ১৬৩ রানে হেরে গেলো শ্রীলঙ্কা বাংলাদেশের কাছে। শিক্ষকের পরাজয় হলো ছাত্রদের কাছে!

বাংলাদেশ দল ২০০৩ সালে ১১৬ রানের বিশাল ব্যাবধানে জয় পেয়েছিল। আজ শ্রীলংকার বিপক্ষে  ১৬৩ রানের বিশাল জয়ের রেকর্ড করেন টাইগার দলের খেলোয়াড়রা।শ্রীলংকার পক্ষে সর্বোচ্চ রান করে ত্রিশাল পেরেরা ১৪ বলে ২৯।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে নিজেদের প্রথম ম্যাচে হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট পেয়েছিলেন লঙ্কানদের নিয়মিত অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। তাঁর পরিবর্তে দলের অধিনায়কত্ব করেছেন দীনেশ চান্ডিমাল।শ্রীলংকার বিপক্ষে ৪২ ওয়ান ডে ম্যাচে টাইগাররা এই প্রথম ব্যাট করতে নেমে তিন‘শ রানের মাইলফলক অতিক্রম করে। টসে জিতে অধিনায়ক মাশরাফি ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন। তামিম, সাকিব মুশফিকের অর্ধশত রান শ্রীলংকা কে জয়ের জন্য ৩২১ রানের টার্গেট দেয়।

আজকের একই ম্যাচে তামিম ইকবালের পর এবার রেকর্ড গড়লেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। দ্বিতীয় বাংলাদেশী হিসেবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিনি ঝুলিতে তুললেন ১০ হাজার রান। ১০ হাজার রান করতে সাকিবের প্রয়োজন ছিল ৬৬ রান করার।

নিজের ৪৮তম ওয়ানডে ম্যাচে খেলতে নেমে  অনন্য মাইলফলকে পা রাখলেন সাব্বিরও।এদিন ব্যাট হাতে মাত্র ১২ বলে ২৪ রানের একটি ক্যামিও ইনিংস খেলেছেন তিনি। যেখানে ছিলো একটা ছয় এবং তিনটা চারের মার।ম্যাচে শ্রীলঙ্কান পেসার সুরঙ্গা লাকমলের করা ৫০ তম ওভারের চতুর্থ বলে বিশাল একটা ছক্কা হাঁকিয়েই ওয়ানডে ক্রিকেটে হাজার রানের ক্লাবে নাম লিখিয়েছেন সাব্বির। এই ম্যাচ নিয়ে সাব্বিরের ৪৮ ম্যাচে ১০০৯ রান।

জয়ের জন্য লঙ্কানদের মিরপুরের মাঠে রেকর্ড ভাঙ্গতে হবে। মিরপুরে সর্বোচ্চ ৩৩০ রান তাড়া করে জেতার রেকর্ড ভারতের। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩২৭ রান তাড়া করে জিতেছিল পাকিস্তান। বাংলাদেশের দেয়া ৩২১ রান তাড়া করে জিততে হলে তৃতীয় সর্বোচ্চ রান তাড়া করার রেকর্ড ভাঙ্গতে হবে লংকানদের।এমন এক পরিসংখ্যানের সামনে তৃতীয় ওভারেই, ব্যাট হাতে ব্যার্থ নাসিরের বলে বোল্ড হয়ে দলীয় ২ রানের মাথায় সাজঘরে ফেরেন ওপেনার কুশল পেরেরা।

ব্যাটিং পাওয়ারপ্লেতেই , মাশরাফিতে পরাস্ত থারাঙ্গা। রাউন্ড দ্যা উইকেট থেকে আসা মাশরাফির বলে তুলে মারতে গিয়ে মিড অফে রিয়াদের হাতে সহজ ক্যাচ তোলেন তিনি।এরপর ১৯ রান করে রুবেলকে ক্যাচ দিয়ে মাশরাফির সাজঘরে ফেরেন মেন্ডিস দলীয় ৬৪ রানের মাথায়।ইনিংসের ১৯তম ওভারে  নিজের উপস্থিতি জানান দেন মুস্তাফিজ ডিকওয়েলাকে সরাসরি বোল্ড করে। স্থায়ী হয়নি চান্ডিমালের ইনিংসও। সাইফুদ্দিনের বলে দ্রুত রান নিয়ে গিয়ে সাকিবের থ্রোতে সাজঘরে ফেরেন ২৮ রান করা চান্দিমাল। ১৯ রান করে রুবেলকে ক্যাচ দিয়ে মাশরাফির বলে আউট হয়ে ফেরেন মেন্ডিস। এরপর ১৬ রান করে মোস্তাফিজের বলে বোল্ড হয়ে সাঝঘরে ফেরেন ডিকভেলা। ২৮ রানে রান আউট হয়ে যান চান্ডিমাল। এরপর বল করতে এসে সাকিব তুলে নিলেন জোড়া উইকেট । সাইফউদ্দিনকে ক্যাচ দিয়ে সাকিবের বলে ১৬ রান করে ফেরেন গুনারত্নে। এরপরই মুশফিককে ক্যাচ দিয়ে সাকিবের বলে ০ রান করে ফেরেন সিলভা। শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ তখন ২৬ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১১৭ রান।এরপর আবারও সাকিব তুলে তাঁর তৃতীয় উইকেট তোলেন থেসেড়া পেরের কে আউট করে।৩০.৫ ওভারে দলীয় রুবেলের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন লাকমল দলীয় ১৫২ রানে।বড় দলগুলোর মতই  টাইগারা ওভার বাকী থাকতে রানে শ্রীলংকাকে পরাজিত করেন ।

প্রথম ম্যাচের মতই আজকের ম্যাচেও ম্যাচ সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। শ্রীলঙ্কার হয়ে পেরেরা ৩টা,ফার্নান্দো ২টা ধনঞ্জয়া ও গুনারত্নে ১টা করে উইকেট লাভ করেন।

ছবিঃ ইএসপিএন