উত্তেজনার ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে ওড়ালো টাইগাররা

আহসান শামীম

উত্তেজনার ম্যাচে জিম্বাবুয়ের জয়ের আশাকে উড়িয়ে দিয়ে জিতলো বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ের মিডেল অর্ডার ব্যাটসম্যান পিটার মুরে আজকের ম্যাচে টাইগারদের  বিপক্ষে জয় নিয়ে যথেষ্ট আশাবাদী বলে জানিয়েছিলেন গতকাল।অন্যদিকে সেঞ্চুরীর আক্ষেপ মেটানোর জন্য তামিম মাঠে নামার কথা বলেছিলেন।কারো আশাই পুর্ন হলো না। তবে জিম্বাবুয়ে আশাটুকু ধূলিসাৎ হলো। টাইগারদের কাছে তারা হেরেছে ১৩.৩ ওভার বাকী থাকতে ৯১ রানে।

২১৭ রানের পুঁজিকে ডিফেন্ড করতে হলে শুরুতে উইকেট দরকার ,তাই করলেন অধিনায়ক মাশরাফি। ইনিংসের চতুর্থ ওভারে ভয়ঙ্কর মাসাকাদজাকে স্লিপে থাকা সাব্বিরের ক্যাচে পরিনত করে পথ দেখালেন তিনি।সপ্তম ওভারে সাকিবের জোড়া আঘাতে বোল্ড হন আরেক ওপেনার সলোমন মিরে।পরের বলে  ব্যাকফুট থেকে খেলতে গিয়ে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন আরেক অভিজ্ঞ ব্রেন্ডন টেইলর।সাকিবের হ্যাট্রিক না হলেও অধিনায়ক মাশরাফি আরভিনকে গুড লেন্থ থেকে বের হয়ে যাওয়া বলে স্লিপে সতর্ক সাব্বিরের ক্যাচে পরিনত করেন টাইগার অধিনায়ক। টানা উইকেট পতনে পাওয়ার প্লেতেই জিম্বাবুয়ের কাজ কঠিন করে তোলে বাংলাদেশের দুই ওপেনিং বোলার।

এরপর ক্রিজে আসা ইনফর্ম সিকান্দার রাজা কিছুটা আক্রমণাত্মক ভুমিকায় খেলার চেষ্টা করেন।লাগাম টেনে ধরেন মুস্তাফিজ। মুস্তাফিজ স্পেলে টানা তিন ওভার বল করে এক রানও খরচা করেননি তিনি।চতুর্থ ওভারে দেন মাত্র ১ রান।অন্যপ্রান্তে সানজামুল মিতব্যয়ী বোলিং করেন। ২৩তম ওভারে ৪২ বল খেলে ১৪ রানের ধির গতির ইনিংস খেলে লেগ বিফরের ফাঁদে পড়েন পিটার মুর। ঠিক পরের বলেই জিম্বাবুয়ের আরেক স্বীকৃত ব্যাটসম্যান ম্যালকম ওয়েলারকে ফেরান তিনি।তিনিও সাকিবের মত হ্যাট্রিকের সুযোগ থেকে বন্চিত হন।৩৩ তম ওভারে কাটার মাষ্টার মুস্তাফিজের ওপর সিকান্দর রাজা চড়াও হয়ে খেলতে গেলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন।এসময় জিম্বুয়ের দলীয় রান ১১১/৮।

জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক ক্রেমার আর জুরভাসের তান্ডবে হঠাৎই ছন্দপতন টাইগারদের।ব্যাটিং এ ভয় পাওয়া কাটার মাষ্টারে সেরা ব্যাটিং শটে কোন রকম দুইশ রানের কোঠায় পেরিয়ে ২১৭ রানের টার্গেট দিতে সক্ষম হয় টাইগাররা।সাকিব, তামিম, সানজামুল আর মুস্তাফিজ ছাড়া কেউ দুই অঙ্কের ঘরে তাঁদের ব্যাক্তিগত রান তুলতে পারেননি। জুরভাস ৩ আর ক্রেমা ৪ উইকেট তুলে নেন।টাইগার দলে সাকিব ৩ টা, অধিনায়ক মাশরাফি, সানজামুল ২ টা  ও মুস্তাফিজ ২ টা করে আর রুবেল ১ উইকেট নেন।

ছবি:গুগল