অষ্ট্রেলিয়া খেলতে চায় না বাংলাদেশের সঙ্গে

আহসান শামীম

খালেদ মাহমুদ সুজনের নেতৃত্বে টাইগার দল অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টেস্ট খেলেছে সর্বশেষ ২০০৩ সালে। দীর্ঘ ১৫ বছর পর আইসিসির ভবিষ্যৎ সফর পরিকল্পনায় অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে দুই টেস্ট ও তিন ওয়ানডে খেলার সুযোগ পেয়েছিল বাংলাদেশ। অস্ট্রেলিয়ার অনাগ্রহে সেই সুযোগও হাতছাড়ার পথে।২০১৭ সালের সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে বাংলাদেশের মাটিতে প্রথমবারের মত টেস্ট হারের পর নিজেদের মাটিতে বাংলাদেশকে আতিথেয়তা দেয়ায় অজিদের অনীহা বিষ্ময়ের জন্ম দিয়েছে।

২০১৮ সালের জুলাইয়ে বাংলাদেশ দলের অস্ট্রেলিয়া সফরের কথা ছিল। আইসিসির ভবিষ্যৎ সফর পরিকল্পনা অনুযায়ী নিজেদের ঘরের মাঠে বাংলাদেশের সাথে দুই টেস্ট ও তিন ওয়ানডের খেলার কথা ছিল অজিদের।সম্প্রতি বিসিবি’কে পাঠানো মেইলে সিরিজ বাতিলের জন্য আবহাওয়ার অজুহাতও দেখানো হয়েছে। বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া সিরিজ না হলে বিসিবির আর্থিক ক্ষতির বিষয়টা দেখভাল করতে রাজি ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।

টাইগারদের বিপক্ষে না না খেলার বিষয় ইমেইল বার্তায়  সমপ্রচার স্বত্বাধিকারীদের অনাগ্রহও একটা বড় কারন বলে জানিয়েছে দেশটার ক্রিকেট বোর্ড। বাংলাদেশকে আতিথিয়তা দেয়ায় মধ্য দিয়ে বাণিজ্যিকভাবে লাভের চেয়ে ক্ষতির হওয়ার আশংকা দেখছেন অজি ক্রিকেট কর্তারা। মূলত পৃষ্ঠপোষকের অভাবের কারনেই বাংলাদেশের সাথে খেলতে রাজি হচ্ছে না অস্ট্রেলিয়া।এ বিষয়ে এখনও বিসিবি’র পক্ষ থেকে কোন প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

ছবিঃ গুগল