কাল শুরু হচ্ছে সাদা লড়াই।

আহসান শামীম

সম্প্রতি শেষ হওয়া ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে লঙ্কানদের বিপক্ষে টাইগারদের হার। এরপরই গনমাধ্যমে প্রকাশ পায় পীচ ফিক্সিং এর ঘটনা।লঙ্কান নাগরিক বাংলাদেশের প্রধান পীচ কিউরেটার গামিনির বিরুদ্ধে ওঠা এমন অভিযোগের সত্যতাও মিলেছে। পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ উঠেছে, ফাইনালের আগে বিসিবির একাডেমি ভবনে চন্ডিকা হাথুরুসিংহের সাথে দেড় ঘন্টা বৈঠকও করেছেন তিনি।এবার কেঁচো খুড়তে সাপ বেরিয়ে এলো। জানা গিয়েছে, তার উপর আগেই সন্দেহ ছিল।

বাংলাদেশ দলের টিম ম্যানেজম্যান্ট বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কাছে সুপারিশও করেছিল যেন গামিনিকে এই সিরিজের দায়িত্ব না দেয়া হয়। এগুলোর গুরুত্ব দেয়নি বিসিবি।একাত্তর টেলিভিশনের কাছে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন চৌধুরী জানান,’যেহেতু টিম ম্যানেজম্যান্ট আর মিডিয়া উইকেটের বিষয়টা নিয়ে আমাদের কাছে কিছু বিষয় এসেছে। বিসিবি বোর্ডও বিষয়টা নিয়ে ইতিমধ্যে আলোচনা করেছে। বিষয়টা নিয়ে আমরা তৎপর, অবশ্যই দেখবো বিষয়টা। তিনি আরও বলেন, ‘এইটা আমাদের সম্পূর্ণ ভিতরের ব্যাপার। আমরা আমাদের মত বিষয়টা তদারকি করবো।’

জানা গিয়েছে গামিনি ডি সিলভাকে এই বিষয়ে কারণ দর্শানোর জন্য ৭২ ঘন্টার সময় বেঁধে দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড।এই সময়ের মধ্যে জবাব দিতে তিনি বাধ্য।ইদানীং সময় সংস্কারের পর সবুজ ঘাষে মোড়ানো মিরপুর স্টেডিয়ামের পীচ আর মাঠ নিয়ে আইসিসির সর্তক বার্তাও পেয়েছে বিসিবি।কারন দর্শানোর নোটিশ দিলেও চট্রগাম টেষ্টের প্রধান কিউরেটারের দায়িত্বও থেকে বিসিবি এখনও গিমিনি ডি সিলভা।যে কারনে গিমিনি ডি সিলভার শাস্তি আদৌ হবে কিনা সে সংশয়ও রয়েছে ক্রীড়া সংশ্লীষ্টদের মনে।

এদিকে স্পিনে খেলতে স্বচ্ছন্দ লঙ্কানদের বিপক্ষে আগামীকাল ৩১ জানুয়ারী থেকে শুরু হতে যাওয়া চট্রগ্রাম টেষ্টে , টাইগারা লঙ্কানদের স্পিনেই বধ করতে চান।শ্রীলংকার বিপক্ষে ১৬ জনের টেস্ট স্কোয়াডে ছয় জনই স্পিনার। তাইজুল ইসলাম, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাঈম হাসান,সানজামুল ইসলাম ও তানভীর হায়দার , রাজ্জাক। জেনুইন স্পিনার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুমিনুল হক ও মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। সব মিলিয়ে স্পিন করতে সক্ষম এমন ক্রিকেটার রয়েছেন নয় জন।

স্পিনারদের নিয়ে মিনহাজুল আবেদীন বলেছেন,‘সানজামুল একদম অনভিজ্ঞ, এক টেস্টও খেলেনি। তাইজুলের ফর্মটাও চিন্তা করতে হবে, দক্ষিণ আফ্রিকায় একটা টেস্ট খেলেছে। অত ভালো করেনি। সেই হিসেবে ফর্মের কথা চিন্তা করেই আমরা বাড়তি স্পিনার নিয়েছি। যার পজিশন ভালো থাকবে আগামীকাল, তাকে নিয়েই চিন্তা করব।

প্রধান নির্বাচক বলেন, বলা যাবে না কে খেলবে। কাল অনুশীলন সেশন শেষে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এর একটা প্রক্রিয়া আছে। টিম ম্যানেজমেন্টের একটা চিন্তা ভাবনা আছে, পরিকল্পনা আছে। সেসব নিয়ে আমরা বসব। তারপর ঠিক করব।
প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে বলেছেন,‘দলের জন্য যেটা সবচেয়ে বেশি দরকার হবে, সেটাই করা হবে। এই টেস্ট আমরা জিততে চাই। ভালো ক্রিকেট খেলতে চাই। ওভাবেই চিন্তা করা হবে।’

এদিকে সাকিবের ইন্জুরীর জন্য আগামীকালের টেষ্টে অধিনায়কের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে রিয়াদকে। ওয়ান ডে অধিনায়ক মাশরাফি এই টেষ্টে খেলার ইচ্ছা প্রকাশের পরদিনই বিসিবি সভাপতি তাঁকে টেষ্টে না, ইচ্ছা করলে টি টুয়েন্টি তে খেলার কথা জানান। তাই সময় সুযোগ পাওয়ায় গত রাতে সপরিবারে মাশরাফি প্রবিত্র ওমরাহ্’র উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করেন।