স্তন ক্যানসার থেকে সাবধান…

স্তনকে সুস্থ ও সুন্দর রাখতে মহিলারা অনেক পরীক্ষা-নিরিক্ষাও করেন। কখনও ঘরোয়া পদ্ধতিতে বা কখনও ডাক্তারী পরিচর্যা করে স্তনকে আরও আকর্ষণীয় করে তুলেন অনেকেই।এতে অনেক সময় স্তনের ক্ষতি হয়ে যায় তাই সাবধান! স্তন সুস্থ রাখতে কিছু বিষয় সব সময় মেনে চলবেন।

ভুল ব্রা:
অনেকেই ঠিকঠাক মাপের ব্রা পরেন না। ফলে কখনও স্তন অত্যন্ত চেপে থাকে আবার কখনও বেশিই ঢিলে হয়ে যায়। বেশি চেপে থাকলে স্তনে ঘাম জমে। আর ঢিলে হলে দেখতে অনেকটা খারাপ লাগে বা ড্রেসের সঙ্গে মানায় না। তাই বুঝেশুনে সঠিক মাপের ব্রা পরবেন।

ডাক্ট টেপ ব্যবহার:
স্তনবৃন্ত যেন পোশাকের উপর থেকে স্পষ্টভাবে বোঝা না যায়, তাই অনেকে ডাক্ট টেপ ব্যবহার করেন। আপনি জানেন না ডাক্ট টেপ আপনার শরীরে মারাত্মক ক্ষতি করতে পারে।ডাক্ট টেপ ব্যবহারে স্তনের আশেপাশে চুলকানি হবে, র্যা শ বের হবে।তাই এই ট্যাপ ব্যাবহার না করাই ভাল।

স্তনবৃন্তে পিয়ার্সিং:
নিজেকে আরও সুন্দর করে তোলার জন্যঅনেকে কানের পাশাপাশি ভ্রু, থুঁতনি, নাভির মতো স্পর্শকাতর অংশেও পিয়ার্সিং করিয়ে থাকেন। এমন শখ হয় একেবারেই ঠিক নয়। চিকিৎসকদের মতে এতে রক্তের মাধ্যমে আপনার দেহে ব্যাকটেরিয়া প্রবেশ করতে পারে।এবং এ থেকে হতে পারে একাধিক রোগ।

স্পোর্টস ব্রা:
যাঁদের মর্নিং ওয়াক বা জগিংয়ের অভ্যাস রয়েছে,বিশেষজ্ঞদের মতে জগিংয়ের সময় তাঁদের স্তন প্রায় ৮ ইঞ্চি বাউন্স করে। আর তাই রোজকার জগিংয়ে স্তন ব্যথা অনুভব করতে পারেন। তাঁদের বিশেষ স্পোর্টস ব্রা পরা অত্যন্ত জরুরি। নাহলে স্তনের ভিতরের টিস্যু ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। চিকিৎসকদের মতে শরীরচর্চার সময় প্রয়োজনে দু’টি ব্রা পড়ুন।

স্তনবৃন্ত ওয়্যাক্সিং:
শরীরের অন্যান্য অংশের তুলনায় এই অংশ অনেক বেশি স্পর্শকাতর।তাই হাত বা পায়ে ওয়্যাক্সিংয়ের কথা ভাবলেও স্তনবৃন্তের দিকে এগোবেন না।এতে ওই স্থান পুড়ে যাওয়া এমনকী এলার্জি হওয়ারও সম্ভাবনা থাকে।

ধূমপান:
ধূমপানের অভ্যাস থাকলে তা পরিহার করুন। ধূমপান সরাসরি আপনার স্তনে খারাপ প্রভাব ফেলে। এতে স্তনের ভিতরকার টিস্যুগুলি ঢিলে এবং দুর্বল হয়ে যায়। আর তাতে করে হতে পারে স্তন ক্যানসারও। আর শুধু স্তনের ক্ষেত্রেই নয়, শরীরের জন্যই ধূমপান ক্ষতিকর।।

অতিরিক্ত যৌন উত্তেজনা:

যৌন উত্তেজনা বাড়লে আর মাত্রা জ্ঞান থাকে না। আর স্তনে লাভবাইটের অনুভব ভাল লাগলেও তা ত্বকের জন্য একেবারেই ভাল নয়। তাই যৌনতার সময় এসব কিছু মাথায় রাখার চেষ্টা অবশ্যই করবেন।
তথ্য সূত্র : ইন্টারনেট
ছবি: গুগল