ওহ স্টিলেটো…

হিল তোলা পাদুকা তো নিশ্চিত ভাবে নারীর পদসেবায় গড়াগড়ি খাওয়া বস্তু। মারাত্নক উচ্চতাসম্পন্ন এই হিল জুতা পায়ে দিয়ে নারী যখন তার শরীরে হিল্লোল তুলে হেঁটে যায় যৌন আবেদন তৈরী হয়, ঝড় ওঠে পুরুষের হৃদয়ে। নানা ধরণের সামাজিক গবেষণাও বলছে, পায়ে হাই হিল শোভিত নারীর প্রতি পুরুষরা দূর্বলও হয়ে পড়ে। কারণ এই বিশেষ ধরণের পাদুকা নারীকে অসাধারণ আবেদনময় করে উপস্থাপন করে। অভিনেত্রী মেরিলিন মনরো একবার বলেছিলেন, ‘আমি জানি না হিল জুতা কে আবিষ্কার করেছিলো কিন্তু তার প্রতি আমার অনেক ঋণ রয়ে গেলো।’ মজার ব্যাপার হচ্ছে ইতিহাস জানাচ্ছে, একদা এই হিলওয়ালা জুতা ছিলো পুরুষের পরিধেয়। যুদ্ধের মাঠে  অশ্ব চালনার সময় শরীরকে জিনের সঙ্গে দৃঢ় ভাবে আটকে রাখতে হিলওয়ালা জুতো বিশেষভাবে সাহায্য করতো। তাই পুরুষদের বুটে লাগানো হতো হিল। সময়ের পরিক্রমায় এ ধরণের হিল যুক্ত বুট ফ্যাশান সচেতন এবং রাজপরিবারের সদস্যদের প্রিয় হযে ওঠে।

শোনা যায়, মধ্যযুগে  ইউরোপের এক রমণী ক্যাথারিন ডি মেডিচি বিয়ে করতে যাবার সময় উচ্চতায় স্বামীর সমান হতে চেয়েছিলো। আর তখনই তার জন্য ব্যবস্থা করা হয়েছিলো হিল লাগানো জুতা। এই ঘটনার প্রায় দুশো বছর পর ফরাসী দেশের রাজ দরবারে হিলওয়ালা জুতা জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। সেখানে তখন এ ধরণের জুতা ছিলো আভিজাত্যের প্রতীক।

 

ইংল্যান্ডের পোর্টসমাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞানের অধ্যাপক পল মরিস, জেনি হোয়াইট এবং কেলিগ ফিশার সম্প্রতি মেযেদের হা্ই হিল জুতা পরিধানের পেছনে তাদের মানসিক গতিপ্রকৃতির ওপর এক অনুসন্ধান চালিয়ে বলেছেন, হাঁটার সময় একজন নারীর তুলনায একজন পুরুষের দেহের উর্ধাংশ বেশী আন্দোলিত হয়। অন্যদিকে হাঁটার গতির সঙ্গে একজন নারীর শররের পেছনের অংশ বেশী আন্দোলিত হয়।তারা পরীক্ষা চালিযে দেখেছেন, নারী যখন হিলওয়ালা জুতা পড়ে হাঁটে তখন তাদের শররের এই আন্দোলন অনেক বেশী ছন্দোবদ্ধ হয়। একই নারী সমান জুতা পরে হাঁটলে তার শরীরের সৌন্দর্য তেমন ভাবে প্রকাশিত হয় না।এই গবেষকদের দল পরীক্ষায় আরো দেখেছেন যে কোনো একজন নারী হাই হিল পরিধান করলে পুরুষের মনে যতোটা যৌন উত্তেজনা তৈরী, তারা অন্য ধরনের জুতা পড়লে সে ধরণের মানসিক উত্তেজনা তৈরী হয় না।

হাই হিল জুতার পৃথিবীতে এখন পর্যন্ত ‘স্টিলেটো’ নামের হিল জুতা নারী মহলে সব চাইতে বেশী জনপ্রিয়।সুচালু হিলযুক্ত এই জুতা মেয়েদের পায়ের উপরে অংশকে সোজা করে রাখা এবং শরীরের পেছনের অংশকে আকর্ষণীয় করে তোলে বলে ফ্যাশন বোদ্ধাদের অভিমত।এক ধরণের স্টিলের পাতলা পাত এই ধরণের জুতার হিলে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। স্টিলেটো যাত্রা শুরু করেছিলো ১৯৫৩ সালে।তারপর জনপ্রিয়তার চড়াই থেকে স্টিলেটোর পতন শুরু হয় ৯০-এর দশকে। তারপর আবার এক দশক মুখ লুকিয়ে থেকে স্টিলেটো এখন স্বমহিমায় আবির্ভূত।

মৃণালী রায়

তথ্যসূত্র: বিবিসি নিউজ, টাইম

ছবি: গুগল