নিষিদ্ধ তিন অজি ক্রিকেটার

আহসান শামীম

অবশেষে  দুঃসংবাদ ঘোষণা করলো ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারকে এক বছরের জন্য আর ব্যানক্রফটকে নয় মাসের জন্য নিষিদ্ধ করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।সিরিজ নির্ধারণী চতুর্থ ও শেষ টেস্টে অজিদের নেতৃত্ব দেবেন টিম পেইন।বল বিকৃত করার অপরাধে জড়িত অজি অধিনায়ক স্টিভ স্মিথকে এক ম্যাচ নিষেধাজ্ঞা সহ পুরো ম্যাচ ফি জরিমানা করে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি,অন্যদিকে ওপেনার ক্যামেরন ব্যানক্রফটের শুধু ম্যাচ ফির ৭৫ শতাংশ কাটা হয়।কোচ ড্যারেন লেম্যানের বল বিকৃতির ঘটনায় জড়িত না থাকার প্রমান মেলায়, তিনি অজিদের কোচ হিসাবেই দলের সঙ্গে থাকছেন। কলঙ্কের বোঝা মুক্ত হলেও অজি কোচ ড্যারেন লেম্যান নিজেই পদ থেকে সরে দাড়ানোর ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন।আজ এক ঘোষনার মধ্য দিয়ে, স্মিথ আর ওয়ার্নার দুইজন কেই বাদ দেওয়া হলো ৭ এপ্রিল থেকে শুরু হতে যাওয়া আইপিএল এর ১১তম আসর থেকে।

বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারির পর স্মিথ পদত্যাগ করেন অজি আর আইপিএল-এর দল রাজস্থান রয়ালসে‘র অধিনায়ক এর পদ থেকে। স্মিথের পরিবর্তে রাজস্থান রয়্যালসে‘র নেতৃত্ব দেয়া হয় আজিঙ্কা রাহানেকে।অপেক্ষায় ছিলেন সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ।আজ সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সেই অপেক্ষার পরিসমাপ্তি হলো।

এক স্থানীয় ক্যামেরাম্যানই অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট লণ্ডভণ্ড করে দিলো। কেপটাউন টেস্টের বিতর্কের পর উঠে আসছে একের পর এক চাঞ্চল্যকর ভিডিও আর তথ্য। জানুয়ারীতে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে হওয়া অ্যাশেজ সিরিজের সময় পকেটে চিনি নিয়ে বেনক্রফটের মাঠে নামার ভিডিও প্রকাশ পাওয়ার পর নতুন করে বিতর্ক শুরু হয়েছে। প্রশ্ন উঠছে কেপটাউন টেস্টের মতো অ্যাশজেও পরিকল্পনা করে বল বিকৃত করেছিল অজিরা।অস্টেলিয়ার প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তদন্ত শুরু হয়।অস্টেলিয়ার ক্রীড়া ক্ষেত্রে ৪২ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী নৈতিকতার অবক্ষয়ের শাস্তি ক্রীড়া ক্ষেত্র থেকে আজীবন নিষেদ্ধাজ্ঞা।অজি ক্রিকেটের তদন্ত এখনও শেষ হয়নি, তদন্ত শেষে আরও কোন দূঃসংবাদ  পেতে পারে ক্রিকেট বিশ্ব।

ছবিঃ গুগল