আবারো রেকর্ড ছুঁলেন সাকিব

আহসান শামীমঃ আইপিএলের ইতিহাসে  সপ্তম ক্রিকেটার হিসেবে শনিবার কলকাতা নাইরাইর্ডাসের বিপক্ষে ম্যাচে , বল হাতে দুই উইকেট শিকারের মঙ্গে দুই ক্যাচ ও ব্যাটিংয়ে ২৫ এর চেয়ে বেশি (২৭) রান করার গৌরব অর্জন করেন সাকিব।

৩১ বছর বয়সী অলরাউন্ডার সাকিবের  আগে আইপিএলে এমন অলরাউন্ড পারফরম্যান্স করার গৌরব অর্জন করেছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলি, সুরেশ রায়না, রবীন্দ্র জাদেজা, জেপি ডুমিনি, আন্দ্রে রাসেল ও ইংলিশ অলরাউন্ডার বেন স্টোকস।আইপিএলের ইতিহাসে সপ্তম ক্রিকেটার হিসেবে এমন ঘটনার সাক্ষী সাকিব হলেও, হায়দরাবাদের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে বিরল রেকর্ড একমাত্র অধিকারী বাঁহাতি অলরাউন্ডার সাকিব।

আইপিএলের সব মৌসুম মিলিয়ে গেল শনিবারই প্রথম ইডেনে কলকাতাকে হারাতে পারল হায়দরাবাদ।জয়ের জন্য বড় ভূমিকা ছিল সাকিবের। ৪ ওভারে ২১ রানে ২ উইকেট নেওয়ার পর ব্যাট হাতে গুরুত্বপূর্ণ সময়ে খেলেছেন ২১ বলে ২৭ রানের ইনিংস।নিয়েছেন দর্শনীয় এক ক্যাচ এতকিছুর পরও ম্যাচ সেরার পুরুস্কার থেকে বন্চিত হন সাকিব।সাকিবের এই ম্যাচসেরা পারফর্মেন্সের পরও ম্যাচসেরা পুরুস্কার না পাওয়াটা জন্ম দিয়েছে বিষ্ময়ের। সাকিবের চেয়ে অনেক পিছিয়ে থেকেও এই পুরস্কার জিতেছেন দলের অজি পেসার বিলি স্ট্যানলেক। ম্যাচে এই অজি বোলারের শিকার দুই উইকেট। চার ওভারে ২১ রান দিয়ে আন্দ্রে রাসেল আর নিতিশ রানার উইকেট নিয়েছিলেন তিনি।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এখনো পর্যন্ত ২৫৭ ম্যাচ খেলে ব্যাট হাতে ৪০১৯ রান এবং বল হাতে ২৯৯ উইকেট শিকার করেছেন সাকিব। বল হাতে আর ১ উইকেট নিতে পারলে বিশ্বের দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে অনন্য এক উচ্চতায় পৌঁছে যাবেন তিনি। সেটি হচ্ছে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ৪০০০ রান এবং ৩০০ উইকেটের মাইলফলক।এখন পর্যন্ত টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এই ক্লাবে প্রবেশ করা একমাত্র ক্রিকেটার ওয়েস্ট ইন্ডিজের ডোয়াইন ব্রাভো। ৩৭৮ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলা ব্রাভোর নামের পাশে রয়েছে ৫৫৮২ রান এবং ৪১৩ উইকেট।

সাকিবের সানরাইজ হায়দ্রাবাদ আইপিএলের তিন ম্যাচের সব কয়টা জয় করে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে অবস্থান করছে। অন্যদিকে মুস্তাফিজের দল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স তিন খেলার সব ম্যাচে পরাজিত হয়ে পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে অবস্থান করছে। সাকিব আর মুস্তাফিজ ৩ ম্যাচে ৫ টা করে উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় সেরা বোলারদের তালিকায় যৌথভাবে অবস্থান করছেন।

স্মার্ট ইকোনমি রেটের দিক থেকে শীর্ষে অবস্থান করছেন টাইগারদের কাটার মাষ্টার শনিবার দিল্লির বিপক্ষে পাওয়ারপ্লেতে মাত্র ৭ রান দিয়েছিলেন মুস্তাফিজ।যে কারনে তাঁর স্মার্ট ইকোনমি রেট দাঁড়িয়েছে ২.৮৭। ফিজের পর ৩.৭৩ ইকোনমি রেট নিয়ে দ্বিতীয়তে অবস্থান করছেন তাঁরই সতীর্থ জাসপ্রিত বুমরাহ।

ছবিঃ গুগল