আসছে ‘রোলিং ইন দ্য ডিপ’

বর্তমান সময়ে অস্থির তরুন প্রজন্মের যাপিতজীবনে নিজেদের একটি ভুল সিদ্ধান্তের কারণে তাদের জীবনে বেশিরভাগ সময় দুর্বিসহ অধ্যায়ের সূচনা ঘটে। এমন ঘটনাকে উপজীব্য করে র্নিমিত হয়েছে নাটক ‘রোলিং ইন দ্য ডিপ’।

সম্প্রতি রাজধানীর উত্তরার বিভিন্ন মনোরম লোকেশনে সম্পন্ন হয়েছে নাটকটির দৃশ্যধারণের কাজ। নাটকটি নির্মাণ করেছেন ওয়াসিম সিতার।

নাটকের গল্পে দেখা যাবে, জীবনে নিজেকে একটি নির্দিষ্ট গন্ডিতে আবদ্ধ রাখার কারণে আবেগবশত হয়ে ইমি তার জীবনের গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়ে ভুল সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। যার প্রভাব ইমির দীর্ঘদিনের প্রেমিক শাফায়েত সহ ইমির পরিবারকেও বহন করতে হয়। একইসঙ্গে ইমি ও শাফায়েত দুজনই তাদের ব্যক্তিগত জীবনে আবেগবশত হয়ে বিভিন্ন সময়ে হঠাৎ সিদ্ধান্ত গ্রহণের ফলে তাদের ব্যক্তিজীবনও যে কতটা ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে উঠে সেই বিষয়গুলোও নানান নাটকীয়তার মধ্য দিয়ে নাটকের শেষ পরিণতির দিকে এগিয়ে যায়।

নাটকটিতে জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন মিশু সাব্বির ও তাসনোভা এলভিন। এছাড়াও অন্যান্যদের মধ্যে আরো অভিনয় করেছেন রিঙ্কু, জনি, অন্তু সহ আরো অনেকে।

নির্মাণের পাশাপাশি নাটকটির গল্প ও চিত্রনাট্য রচনার কাজটিও করেছেন নির্মাতা নিজেই। নাটক প্রসঙ্গে প্রাণের বাংলাকে ওয়াসিম সিতার বলেন, “গল্পে দর্শকদের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি বার্তা রয়েছে। সেই বার্তাটি কি তা এখুনি বলতে চাইছি না। নাটকটি দেখার পরে দর্শকরা বুঝতে পারবেন আমি অল্প সময়ের মধ্যে একটি ঘটনার মাধ্যমে তরুন সমাজের জন্য কোন গুরুত্বপূর্ণ বার্তা পৌছে দেওয়ার চেষ্টা করেছি।”

নির্মাতার সঙ্গে প্রায় একই সুরে নিজের অবস্থানও তুলে ধরলেন নাটকে ইমি চরিত্রের অভিনেত্রী তাসনোভা এলভিন। তার ভক্তরাও নাকি নাটকটি দেখার পরে একটি বিশেষ বার্তা পাবেন বলে তার বিশ্বাস।

বলেন, “একজন নারী কিংবা পুরুষের সবসময় যেনো ভেবে চিন্তা করে জীবনের প্রতিটি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। হঠাৎ করে রাগের মাথায় কিংবা আবেগে কোন সিদ্ধান্ত নিলে সেই সিদ্ধান্তগুলো সবসময়ই ভুল সিদ্ধান্ত হয়। আর সেই বার্তাই আমার অভিনীত চরিত্রের মাধ্যমে আমার সকলশ্রেণির দর্শকরা পাবেন।”

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আসছে ঈদুল ফিতরে একটি বেসরকারী টেলিভিশনে নাটকটি প্রচারিত হবে বলে প্রাণের বাংলাকে নিশ্চিত করেছেন নির্মাতা।

প্রাণের বাংলা প্রতিবেদক

ছবি সংগ্রহ : নির্মাতার সৌজন্যে