অন্যরকম ইফতারে…

আলভী রহমান শোভন

ছোলা, বুট আর জিলাপীকে বলা যেতে পারে ইফতারের ক্লাসিক্যাল মেন্যু। কিন্তু যতো দিন যাচ্ছে ইফতারের মেন্যু ক্রমাগত ডালপালা বিস্তার করেই চলছে। ইফতারের তালিকায় যুক্ত হচ্ছে নানা ধরণের খাবার। পাশ্চাত্যের বহু খাবারের মেন্যু এখন যুক্ত হয়ে গেছে আমাদের ইফতারের টেবিলে। প্রাণের বাংলার রান্নাঘর থেকে পাঠকদের জন্য এই সংখ্যার প্রচ্ছদ আয়োজনে রইলো ইফতারের তেমনি কিছু আয়োজন।আমাদের জন্য রেসিপি দিয়েছেন রন্ধনশিল্পী আলভী রহমান শোভন।

 

পাস্তা ইন রেড স্পিনাচ সস

পাস্তা ইন রেড স্পিনাচ সস

উপকরণ:

পাস্তা ১৫০ কাপ, লালশাক কুঁচি ১.৫ কাপ, রসুন কুঁচি ১ চা চামচ, মাখন ১ টেবিল চামচ, সাদা গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, মিল্ক ক্রিম ২ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদ মত।

প্রণালী:

 প্যানে পানি ফুটিয়ে এতে সামান্য লবণ ও তেল দিয়ে পাস্তা সেদ্ধ করুন। এবার রেড স্পিনাচ সস বানাতে প্যানে মাখন গরম করে রসুন কুঁচি দিয়ে হালকা ভাজুন। এবার লালশাক দিয়ে নেড়ে চেড়ে লবণ ও সাদা গোলমরিচ গুঁড়া দিয়ে সিজনিং করে চুলা থেকে নামান। এবার ব্লেন্ডারে সামান্য পানি দিয়ে শাক ব্লেন্ড করুন।তারপর প্যানে ব্লেন্ডেড মিশ্রণটি গরম করুন। বলক উঠলে মিল্ক ক্রিম দিয়ে নাড়ুন। এতে শাকের কাঁচা গন্ধ দূর হবে। ঘন হয়ে এলে এতে সেদ্ধ পাস্তা ঢেলে ভালভাবে নাড়ুন। চুলা বন্ধ করে গরম গরম পরিবেশন করুন।

পাস্তা স্প্রিং রোল

পাস্তা স্প্রিং রোল

উপকরণ:

ক) পুরের জন্য: সেদ্ধ পাস্তা ১৫০ গ্রাম, পছন্দ মত সবজি কুঁচি ১ কাপ, তেল ১ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুঁচি ১ টেবিল চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, সয়াসস ১ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদ মত।

খ) রোলের জন্য: ময়দা ২ কাপ, চিনি আধা চা চামচ, লবণ স্বাদ মত, কুসুম গরম পানি পরিমাণ মত, তেল ২ কাপ।

প্রণালী: প্যানে তেল গরম করে পেঁয়াজ কুঁচি দিয়ে হালকা ভেজে গোলমরিচ গুঁড়া,সয়াসস এবং লবণ দিয়ে সবজি কুঁচি দিয়ে দিন। ভালো ভাবে নেড়েচেড়ে সেদ্ধ পাস্তা দিন। কিছুক্ষণ প্যানে রেখে চুলা বন্ধ করুন। এবার রোলের জন্য ময়দার সঙ্গে চিনি, লবণ এবং সামান্য তেল দিয়ে কুসুম গরম পানি ঢেলে ময়ান করুন। ময়ানটি ভাগ ভাগ করে রুটির মত বেলে নিন। এবার এর মধ্যে পাস্তার পুর দিয়ে রোল করুন। ডুবো তেলে হালকা বাদামী করে ভেজে সসের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

 সিক্রেট র্যা পড ক্যাবেজ

উপকরণ:

 বাধাকপি ১ টি, ক্যানড টুনা মাছ ফ্লেক্স ১ টিন, টমেটো আধা কাপ, শসা আধা কাপ, ক্যাপসিকাম ৩ রঙের তিনটি, বরবটি ৪/৫ টি, সাদা গোলমরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ, চাট মশলা আধা চা চামচ, লবণ স্বাদ মত, ভেজিটেবল অয়েল ১ টেবিল চামচ।

সিক্রেট র্যা পড ক্যাবেজ

প্রণালী:

 বাধাকপি থেকে গোটা পাতা আলাদা করে নিতে হবে। এরপর পাতাগুলো ভাপে অর্ধ সেদ্ধ করে নিতে হবে। প্যানে তেল গরম করে ক্যানড টুনা মাছ ফ্লেক্স দিতে হবে। চাইলে নিজের পছন্দ মত মাছ দেওয়া যেতে পারে, সেক্ষেত্রে মাছ টুকরো করে ফুটন্ত গরম পানিতে লবণ এবং হলুদ দিয়ে সেদ্ধ করে নিতে হবে। এরপর সেদ্ধ মাছের কাঁটা বেছে তেলে ভাজতে হবে। এবার মাছে ক্যাপসিকাম কুঁচি এবং বাধাকপি কুঁচি দিয়ে নেড়ে সাদা গোলমরিচ গুঁড়া এবং লবণ দিয়ে ভালো ভাবে নেড়েচেড়ে চুলা বন্ধ করতে হবে। মিশ্রণে শসা এবং টমেটো কুঁচি দিয়ে চাট মশলা ছিটিয়ে ড্রেসিং করতে হবে। এবার অর্ধ সেদ্ধ বাধাকপির পাতায় মাছ ও সবজির মিশ্রণটি দিয়ে র্যা প করে সেদ্ধ বরবটি দিয়ে বেঁধে পরিবেশন করতে হবে।

 

ফালাফেল

ফালাফেল

উপকরণ:

 ছোলা ২ কাপ, পেঁয়াজ কুঁচি ১/২ কাপ, রসুন কুঁচি ২ টেবিল চামচ, পার্সলে কুঁচি ১/২ কাপ, জিরা টালা ১ চা চামচ, মরিচের গুঁড়া ১ চ্যাঁ চামচ, কর্ণফ্লাওয়ার ৪ টেবিল চামচ, লেবুর রস ৩ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদ অনুযায়ী, তেল ২ কাপ।

প্রণালী:

 ছোলা পানিতে ৮-১০ ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখুন। পানি ঝরিয়ে তেল বাদে বাকি সব উপকরণ এক সাথে মিশিয়ে সামান্য পানি দিয়ে ব্লেন্ড করুন। মিশ্রণটি একটি পাত্রে রেখে ২০ মিনিট ঢেকে রাখুন। বিশ মিনিট পর মিশ্রণ থেকে বল করে ডুবো তেলে হালকা বাদামি করে ভেজে তুলুন।

প্যান ফ্রায়েড চিকেন ইন বারবিকিউ ফ্লেভার উইথ ক্রিম অব ক্যাবেজ সস

উপকরণ:

মুরগির মাংস ৫০০ গ্রাম, মরিচের গুঁড়া ১ চা চামচ, আদা বাটা ১ চা চামচ, রসুন বাটা ১/২ চা চামচ, সয়া সস ২ টেবিল চামচ, টমেটো সস ৪ টেবিল চামচ, বারবিকিউ সস ১/২ কাপ, তেল ১ কাপ, বাঁধাকপি কুঁচি ২ কাপ, ক্রিম ১ কাপ, সাদা গোলমরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ।

প্রণালী:

 মুরগীর মাংসের সঙ্গে মরিচের গুঁড়া, আদা বাটা, রসুন বাটা, সয়া সস ও টমেটো সস মিশিয়ে মেরিনেট করে রাখুন ৩০ মিনিট। মেরিনেশনের পর এতে বারবিকিউ সস মাখিয়ে প্যানে তেল গরম করে মাংসগুলো মাঝারি আঁচে ভেজে তুলুন। এবার ক্রিম অব ক্যাবেজ সসের জন্য প্রথমে বাঁধাকপি গরম পানিতে ব্লাঞ্চ করে নিন। তারপর ব্লেন্ডারে সামান্য পানি দিয়ে ব্লেন্ড করে নিন। মিশ্রণটির সঙ্গে ক্রিম মিশিয়ে প্যানে হালকা গরম করে নিন। গোলমরিচ গুঁড়া ছিটিয়ে চুলা বন্ধ করুন। ডিশে সস ছড়িয়ে এর উপর মাংস রেখে পরিবেশন করুন।

ক্রামড ভেজিটেবল ফিঙ্গার

ক্রামড ভেজিটেবল ফিঙ্গার

উপকরণ:

গাজর ১ টি, বেগুন ১ টি, ঢেঁড়স ৪ টি, ডিম ১ টি, মরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, জিরা গুঁড়া আধা চা চামচ, লবণ স্বাদ মত, ব্রেডক্রাম্ব প্রয়োজন মত, তেল ভাজার জন্য।

প্রনালী:

গাজর এবং বেগুন ফিঙ্গার আকারে কেটে নিন। ঢেঁড়স মাঝখান থেকে কেটে দুই ভাগ করে নিন। ডিম ফেটিয়ে এতে মরিচ গুঁড়া, জিরা গুঁড়া এবং লবণ মেশান। সবজিগুলো ডিমের গোলায় চুবিয়ে ব্রেডক্রাম্বে গড়িয়ে ফ্রিজে রাখুন আধা ঘণ্টা। প্যানে তেল গরম করে ডুবো তেলে সবজিগুলো বাদামি করে ভেজে পরিবেশন করুন।

ভেজিটেবল নাগেটস

ভেজিটেবল নাগেটস

উপকরণ:

আলু মাঝারি আকারের ১ টি, পছন্দমত সবজি কুঁচি ২ কাপ, শুকনা মরিচ বাটা ১ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ, গরম মশলা আধা চা চামচ, জিরা বাটা আধা চা চামচ, ধনিয়া বাটা আধা চা চামচ, লবণ স্বাদ মত, ডিম ১ টা, ব্রেডক্রাম্ব ২ কাপ, তেল ভাজার জন্য।

প্রণালী:

 আলু সেদ্ধ করে হাত দিয়ে চটকে নিতে হবে। অন্য সবজি ভাপে হালকা সেদ্ধ করে ব্লেন্ড করে নিন।  এবার এতে ডিম ছাড়া বাকি সব উপকরণ সবজির সঙ্গে মিশিয়ে নাগেটসের আকার করতে হবে। ডিম ফেটিয়ে নাগেটসগুলো ডিমে চুবিয়ে ব্রেডক্রাম্বে গড়িয়ে ডুবো তেলে বাদামী করে ভাজলেই তৈরি হয়ে যাবে ভেজিটেবল নাগেটস। সসের সঙ্গে গরম গরম পরিবেশন করতে হবে।

 

সবজি পুরি

সবজি পুরি

উপকরণ:

ক) পুরির ডো এর জন্য: ময়দা ২ কাপ, তেল ১ টেবিল চামচ , লবণ  স্বাদমত, পানি আধা কাপ ।

খ) পুরের জন্য: পছন্দ মত সবজি কুঁচি ১ কাপ, পাঁচফোঁড়ন আধা চা চামচ, হলুদ গুড়া আধা চা চামচ, মরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, আদা বাটা ১ চা চামচ, ধনেপাতা কুঁচি ১ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদ মত, তেল ভাজার জন্য ।

প্রনালী:  সবজি সেদ্ধ করে করুন। পানির পরিমাণ এমন হতে হবে যেন সবজি সেদ্ধ হয়ে পানিও শুকিয়ে যায়। এবার প্যানে তেল গরম করে পাঁচফোঁড়ন দিন। হালকা ভেজে সবজিগুলো দিয়ে মরিচের গুঁড়া, হলুদ গুঁড়া, আদা বাটা এবং লবণ দিয়ে নেড়েচেড়ে নিন। ধনিয়া পাতা কুঁচি ছড়িয়ে চুলা বন্ধ করুন। এবার সবজিগুলো অর্ধ ম্যাশড করে নিন। পুরির ডো তৈরীর জন্য একটি পাত্রে ময়দা এবং লবণ মিশিয়ে এতে তেল ও পরিমান মত পানি দিয়ে ময়ান করুন। এবার ডো থেকে ছোট ছোট বলের মত করে হাতের তালুতে গোল করে নিন। এবার প্রতিটি বল আঙুল দিয়ে ছড়িয়ে নিয়ে এর মাঝে পরিমান মত ম্যাশড সবজি দিয়ে চারপাশ থেকে মাঝের দিকে এনে বলের মুখ বন্ধ করে দিন। এবার বল গুলো বেলে ডুবো তেলে ভেজে সসের সাথে গরম গরম পরিবেশন করুন সবজি পুরি।

ছবি:আলভী রহমান শোভন