চলে গেলেন প্রথম বন্ড গার্ল

অভিনেতা শন কনোরী কিছুতেই বলতে পারছিলেন না জেমস বন্ড সিনেমার সেই বিখ্যাত সংলাপ-বন্ড, জেমস বন্ড। তাও আবার প্রথম জেমস বন্ড ছবি ‘ডা. নো’ তে। বেশ কয়েকবার পরিচালক টেরেন্স ইউঙকে কাট বলে চীৎকারও করে উঠতে হচ্ছিলো। বারবার ভুল সংলাপ বলছিলেন শন কনোরী। শেষে পরিচালকের বুদ্ধিতে শন কনোরীকে নিয়ে বাইরে একটা রেস্তোরাঁয় কিছুক্ষণ সময় কাটিয়ে এলেন উইন্সি গাইসন। আর তারপরেই পর্দার জেমস বন্ড বলে উঠৈলেন সেই অসাধারণ নাটকীয় সংলাপ-বন্ড, জেমস বন্ড।

প্রথম বন্ড সিনেমা ‘ডা. নো’ তে এই উইন্সি গাইসনই ছিলেন প্রথম বন্ড গার্ল। অভিনয় করেছিলেন শন কনোরীর বিপরীত্। গত ৮ জুন এই বৃটিশ অভিনেত্রী ৯০ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন।

বন্ড ছবির দুই প্রযোজক মিচেল জি উইলসন এবং বারবারা ব্রকোলি এই অভিনেত্রীর মৃত্যুতে শোক জানিয়ে বলেছেন, ‘আমরা বেদনার্ত প্রথম বন্ড গার্লের মৃত্যুতে। তিনি বন্ড পরিবারের সদস্য ছিলেন। তিনি ‘ডা. নো’ এবং ‘ফ্রম রাশিয়া উইথ লাভ’ দুটি বন্ড ছবিতে অভিনয় করেছিলেন। যেটা একটি ব্যতিক্রম।’

ছবিটিতে তাঁর চরিত্রটির নাম ছিলো সিলভিয়া ট্রেঞ্চ। প্রথম বন্ড গার্ল হিসেবে পর্দায় এসেই দর্শকদের মন জয় করেছিলেন উইন্সি। ইংল্যান্ডের সারে শহরে তার জন্ম। অভিনয় ক্যারিয়ারে তিনি বন্ড গার্ল হিসেবে অভিনয় করার আগে বেশ কয়েকটি ছবিতে কাজ করেন। এসব ছবির মধ্যে ‘রিভেঞ্জ অফ দি ফ্রাঙ্কেনস্টাইন’ আলোচিত হয়। বন্ড মুভিতে অভিনয় করার পর তাঁর ভাগ্য খুলে যায়। বেশ কিছু সিনেমা এবং টেলিভিশনে বিখ্যাত ধারাবাহিক ‘দ্য সেইন্ট’, ‘অ্যাভেঞ্জার্স’-এ অভিনয়ের জন্য ডাক পান তিনি।

বিনোদন ডেস্ক

তথ্যসূত্রঃ বিবিসি নিউজ

ছবিঃ গুগল