আর্জেন্টিনা দলের তিন টন খাবার এলো দেশ থেকে

জানপ্রাণ দিয়ে মাঠে লড়বেন খেলোয়াড়রা। আর সেই লড়াইটা যথাযথ হওয়ার জন্য চাই সুষম খাদ্য। পেট খালি রেখে তো আর বিশ্বকাপ জয়ের লড়াই করা যায় না। আর সেজন্যই আর্জেন্টিনা দল কোনো ঝুঁকিতে যেতে নারাজ। আগে থেকেই বিমানে করে তাদের জন্য তিন টন খাবার নিয়ে যাওয়া হচ্ছে মস্কোতে।

সেই খাবারে যেমন রয়েছে বিভিন্ন ধরনের মাংস এবং দুধ, তেমনই রয়েছে মাতে, যা ক্যাফিনযুক্ত এক ধরনের শক্তিবর্ধক পানীয়। শুধু তাই নয়, ইতিমধ্যেই ব্রনিৎস্কি ট্রেনিং সেন্টারে পৌঁছে গিয়েছেন আর্জেন্টিনার নিজস্ব রান্না করার শেফ। মস্কো থেকে ৩০ মাইল দূরে এখানেই উঠবেন লিওনেল মেসিরা।
মানুয়েল লানজিনি ছিটকে যাওয়ায় এমনিতেই আর্জেন্টিনা শিবির কিছুটা চুপচাপ। এবারের বিশ্বকাপে লানজিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবেন, এমনটাই মনে করা হচ্ছিল। বিশেষত, ফর্মে থাকা মাউরো ইকার্ডিকে বাদ দিয়ে লানজিনিকে একরকম জোর করেই নিয়েছিলেন আর্জেন্টিনা কোচ জর্জে সাম্পাওলি। কিন্তু লানজিনি ছিটকে যাওয়া ইকার্ডিকে ডাকা হয়নি, বরং দলে এসেছেন এনজো পেরেজ। আর্জেন্টিনার রিভারপ্লেটে খেলেন ৩২ বছরের পেরেজ। তার আগে বেনফিকা এবং ভ্যালেন্সিয়াতে খেলেছেন।
দেশের বিশ্বকাপ জয়ের সম্ভাবনা উজ্জ্বল দেখে আর্জেন্টিনা থেকে ২০ হাজার দর্শক খেলা দেখতে যাচ্ছেন রাশিয়ায়। যত আর্জেন্টিনা এগিয়ে যাবে  তত দর্শক আসার পরিমাণ বাড়বে বলে জানিয়েছেন রাশিয়ায় আর্জেন্টিনার রাষ্ট্রদূত রিকার্ডো লাগোরিও। তিনি এও জানান, আর্জেন্টিনা যেসব স্টেডিয়ামে খেলবে সব জায়গায় ঘুরে আসা হয়েছে। নিরাপত্তা ব্যবস্থা দেখে তাঁরা সন্তুষ্ট।‌

প্রাণের বাংলা ডেস্ক

তথ্যসূত্রঃ আজকাল, কলকাতা

ছবিঃ ফিফা