বেকিং আর ডেজার্ট এক্সপার্ট নাজিয়া ফারহানা

নাজিয়া ফারহানা; বাংলাদেশের একজন প্রতিষ্ঠিত কালিনারী আর্টিস্ট। রান্না করাটা বলতে গেলে একটা নেশাই ছিল তাঁর সেই ছেলেবেলা থেকে কিন্তু সেই নেশাই এখন তাঁর পেশা হয়ে দাঁড়িয়েছে। ইংরেজিতে মাস্টারস সম্পন্ন করা এই রন্ধন শিল্পী রান্নার খুঁটিনাটি আরও বিশদ ভাবে জানতে বেশ কিছু কোর্স সম্পন্ন করেছেন যেগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল – জাতীয় মহিলা সংস্হা থেকে ক্যাটারিং ও ফুড প্রিজারবেশন কোর্স এবং আইএলও এর অধিনাধীন বিএবিটি থেকে ফুড অ্যান্ড বেভারেজের উপর ডিপ্লোমা কোর্স। তাছাড়া আইএলও এর অধিনাধীন বিএবিটি থেকে লেভেল ১ এবং ২ সম্পন্ন করেছেন। বর্তমানে কাজ করছেন স্বপ্ন সুপার শপের (এসিআই)কুরিনারী ইন্সেট্রাকটর হিসেবে ।
নিয়মিত বাংলাদেশী এবং ভারতীয় বিভিন্ন পত্রিকা ও ম্যাগাজিনে রেসিপি প্রকাশিত হয়ে থাকে এই রন্ধনশিল্পীর।তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো আমাদের সময়, যুগান্তর, জনকন্ঠ, দি ডেইলি অবজারভার, সমকাল, আনন্দ আলো, অন্য দিন, অন্যনা ,স্বাদ কাহন, সাপ্তাহিক, আনন্দ ভুবন, দি পেইজ, টেস্ট অফ বাংলাদেশ, রোদসী, লুক @ মি , এটিএন লাইফ স্টাইল, ফুড & ফান,অনলাইন ম্যাগাজিন প্রাণের বাংলা এবং ভারতীয় হ্যাংলা হেঁশেল। শুধুমাত্র রেসিপিই নয়, পাশাপাশি খাবার বিষয়ক ফিচারও লিখে থাকেন তিনি। দেশ এবং দেশের বাইরে বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে শোও করেছেন তিনি যেগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য বিটিভি, মাছরাঙ্গা টেলিভিশন,এটিএন বাংলা, এনটিভি, ভারতের আকাশ ৮ এবং জি বাংলা।
দেশের শীর্ষস্থানীয় কুকিং রিয়্যালিটি শোতে অংশগ্রহণ করে বেশ শক্ত অবস্থান বজায় রেখেছেন নাজিয়া যেগুলোর মধ্যে সেরা রাঁধুনি -১৪২৪ এ ২য় রানার আপ, কাজী আ্যণ্ড কাজী ক্যামপেইনে চ্যাম্পিয়ন এবং শেফ অফ দ্যা ইয়ারে ৬ষ্ঠ রানার আপ হয়েছেন। তবে তার রান্নার প্রথম প্রাপ্তি হয় আড়লা লিমিটেড থেকে।
মায়ের কাছ থেকে রান্নার হাতেখড়ি হওয়া নাজিয়ার দুই সন্তান রান্নার সবচেয়ে বড় সমালোচক। শুধু পরিবার নয়, পাশাপাশি আত্মীয় স্বজন ও বন্ধুদেরও রান্না করে খাওয়াতে ভালোবাসেন নাজিয়া। বেকিং আর ডেজাটে এক্সপার্ট এই রাঁধুনির শান্তাস কুজিন নামে রান্না শেখানোর একটি প্রতিষ্ঠান আছে সেখানে সব ধরনের রান্না শেখানো হয়। পাশাপাশি একই নামে একটি নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলও রয়েছে তার।

সাক্ষাৎকার: আলভী রহমান শোভন

ছবি: ফেইসবুক