কবজি ডুবিয়ে সবজি…

অসিত কর্মকার সুজন

সবজি খেতে অনেকেই পছন্দ করেন আবার সবজি কথাটা শুনলে অনেকেই নাক সিটকান।অনেকে বলেন একদম খেতে ভালো লাগেনা।আমি আবার এই ভালো নালাগাদের দলে।বাচ্চারাও আমার মতো সবজি একেবারেই খেতে চায়না।তবে সেই সবজি রেসেপিতেই যদি ভিন্ন স্বাদ আনা যায় তাহলে কে না খেতে চাইবে।আজ আমাদের জন্য সবজির এমন কিছু রেসেপি দিয়েছেন অসিত কর্মকার সুজন।আমরা হয়তো চেটেপুটেই খেয়ে নিবো সব।

মালাই পটল

মালাই পটল

উপকরণ :

পটল ছয় টা , পুরের জন্যে পেস্ট এক কাপ (কাজু ,পেস্তা , খেজুর ও মাওয়া পেস্ট করে চিনি ও ঘি দিয়ে মাখিয়ে রাখতে হবে ) তরল দুধ এক কেজি , গুড়া দুধ আধা কাপ , চিনি আধা কাপ , মাওয়া দুই টেবিল চামচ , ঘি দুই টেবিল চামচ ।

প্রণালী :

পটলের খোসা ফেলে দিয়ে মাঝখান থেকে অল্প করে চিড়ে দানা গুলো সাবধানে বের করে নিতে হবে । খেয়াল রাখতে হবে যে পটল যেনো দু’ভাগ না হয়ে যায় । এবার একটু পানিতে হাল্কা ভাপিয়ে নিতে হবে । পানি ঝড়িয়ে সুতি কাপড় দিয়ে আলতো ভাবে পটল গুলো মুছে নিতে হবে । এবার পটলের ভেতর পুর ভরে ঘিয়ে ভেজে তুলে রাখুন । অন্য পাত্রে তরল ও গুড়ো দুধ , চিনি , এলাচ , দারচিনি মিশিয়ে জ্বাল দিন ঘন করুন । অর্থাৎ প্রায় অর্ধেক হলে বুঝতে পারবেন যে ঘন হয়ে এসেছে ( এলাচ ও দারচিনি তুলে ফেলে দিন ) । এবার ভেজে রাখা পটল গুলো ঘন দুধে দিয়ে জ্বাল কমিয়ে আরো পাঁচ / দশ মিনিট রেখে । আরো একটু মাখো মাখো হলে নামিয়ে ঠাণ্ডা করে কিসমিস ছড়িয়ে পরিবেশন করুন ।


ইলিশ পুরে দই করলা

উপকরণ:

করলা ২৫০ গ্রাম ,টক দই : ৫০০ গ্রাম ,মিষ্টি দই ২৫০ গ্রাম,তেল ভাজার জন্য ,লবণ স্বাদমতো ,বিট লবণ পরিমান মতো,জিরা গুঁড়া ২ চা চামচ ,ধনিয়া, গুঁড়া ১ চা চামচ,মরিচ, গুঁড়া ১ চা চামচ ,গোলমরিচ, গুঁড়া আধা চা চামচ ,সামান্য লবণ দিয়ে মাখানো ইলিশ মাছ পেস্ট ১ কাপ ,সরিষার তেল আধা কাপ ।

প্রণালী:

প্রথমে করলারবিচি বের করে একটু লবণ মেখে সামান্য ভাপিয়ে নিতে হবে।এবার ইলিশের পুর করলায় দিয়ে তেলে সামান্য ভেজে তুলে রাখুন । এরপর একটি বাটিতে টক দইয়ের সঙ্গে একে একে মিষ্টি দই, মরিচ গুঁড়া, লবণ, বিট লবণ, জিরা গুঁড়া, ধনিয়া গুঁড়া এবং গোলমরিচ গুঁড়া দিয়ে ভালমতো মিশিয়ে নিন। এবার কড়াইয়ের গরম তেলে মশলা ভালোভাবে কষিয়ে নিয়ে পুর ভরা করলা দিয়ে মাখো মাখো হয়ে এলে নামিয়ে গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন ।

গোর্ড স্যান্ডউইচ

গোর্ড স্যান্ডউইচ

উপকরন:

বড় সাইজের লাউ- ৪ স্লাইস (কোনাকুনি করে করে কাটা) সিদ্ধ করা সয়া কিমা ১০০গ্রাম,সাদা গোল মরিচ গুঁড়ো এক চিমটি,কালো গোল মরিচ গুঁড়ো –এক চিমটি,সরিষা পেষ্ট ১/৪ চা চামচ,ওয়েস্টার সস্ ১/৪ চা চামচ,মাখন ১/৪ চা চামচ,অলিভ অয়েল আধা কাপ ,লবন পরিমান মত।

প্রণালী:

একটি প্যানে অলিভ অয়েল দিয়ে তাতে সয়া কিমা ও বাকী সকল উপকরণ গুলো দিয়ে দিন।ভালো করে মাখিয়ে মিশ্রণ তৈরি করুন।লাউ টুকরো ভালোভাবে ধুয়ে ব্লাঞ্চ করে নিন। এবার লাউয়ের এক পাশে আগে থেকে রান্না করে রাখা সয়া কিমা দিয়ে তার উপর আর একটি লাউয়ের টুকরো দিয়ে তাওয়ায় সেঁকে নিয়ে টমেটো সস দিয়ে পরিবেশন করুন ।

চিচিংগার আচার

চিচিংগার আচার

উপকরণ :

চিচিংগা স্লাইস ২ কাপ ,চিলি ফ্লেক্স, সরিষার তেল, তরল গুড়, পাঁচফোড়ন বাটা, জিরা গুঁড়া।

প্রণালী :

প্যানে তেল দিয়ে শুকনা মরিচ ফোড়ন দিয়ে তাতে পাঁচফোড়ন বাটা ও ভিনেগার দিয়ে কষিয়ে নিন। এর পর চিচিংগা দিয়ে একটু কষিয়ে তরল গুড় দিয়ে দিন। কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে চিলি ফ্লেক্স, জিরা গুঁড়া দিয়ে দিন। গুড় গায়ে লেগে এলে চুলা থেকে নামিয়ে নিন।